‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কুরআনের ১ নম্বর কর্মী হিসেবে থাকতে চাই’- মিশা সওদাগর

১১:৩২ অপরাহ্ণ | বুধবার, মে ১, ২০১৯ বিনোদন
misha

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ২৭ এপ্রিল ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় আহলুল হুফফাজ ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অভিনেতা মিশা সওদাগর বলেছেন, আমি অন্য একটি পেশার মানুষ কিন্তু আল্লাহ’র ভয় সবসময় আমার অন্তরে কাজ করে। কারণ আমি মুসলিম। আমার ধর্ম ইসলাম। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কুরআনের ১ নম্বর কর্মী হিসেবে থাকতে চাই।

কুরআনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারায় আল্লাহ’র কাছে শুকরিয়া জানিয়ে মিশা সওদাগর বলেন, আমি এখানে বসে শুধু ভাবছিলাম। বাচ্চাগুলো যখন বাম দিকে ফোকাস দেয় সব ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশের সব বড় বড় আলেম, বিচারক, হাফেজ-ক্বারী মহোদয়রা বসে রয়েছেন। ওর ও নিশ্চয় ভেতর থেকে কম্পিটিশন আরম্ভ হয়ে যায়; কি জিজ্ঞেস করবেন, কি বলবেন। আপনার বিশ্বাস করেন আমার সব মিলিয়ি ৮-১০টি সূরা মুখস্ত। আমি ওগুলো বারবার রিপিট করছিলাম। আমাকে যদি বলা হয় আদৌ আমি এখানে বলতে পারব কিনা। আমার হার্টবিট বেড়ে যাচ্ছিল। আর এই বাচ্চাগুলো এখানে অকপটে সব বলে দিচ্ছিল।

তিনি আরো বলেন, আমার ৫৩ বছর বয়সে ২বার হজ্ব করেছি। অনেক রোজা রেখেছি, আমরা ঢাকাইয়া মানুষ জ্ঞানমতো কোনদিন রোজা ভাঙ্গিনি। অনেক তারাবি পড়েছি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তুজা এমপি।

এ সময় ত্রিশ পারা ও দশ পারা—এ দুই দলে মোট ১৫০ জন থেকে ৯ জন প্রতিযোগীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এর মধ্যে ত্রিশ পারা গ্রুপে চারজন এবং দশ পারা গ্রুপে পাঁচজনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এ সময় ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার মেয়ে হুমাইরা মোর্ত্তুজা কুরআন তিলাওয়াত করে উপস্থিত সবাইকে শোনায়।