🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

ভাতা দেয়ার কথা বলে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ!


❏ বৃহস্পতিবার, মে ২, ২০১৯ ঢাকা

দেওয়ান আবুল বাশার, স্টাফ রিপোর্টার: মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে গৃহশিক্ষককে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতের বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আলোচিত ঘটনাটি ঘটেছে দৌলতপুরের চকহরিচরন গ্রামে, অভিযুক্ত গৃহশিক্ষকেরর নাম একেএম চাঁন মিয়া।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, দৌলতপুর চকহরিচরন গ্রামে মাত্র দেড় মাস আগে বিয়ে দেওয়া হয় এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে (৩০) । বিয়ের দেড় মাসের মধ্যে ওই নারী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে ডাক্তারী পরীক্ষা (আলটাসনোগ্রাফি) করা হয়। এতে ওই নারী ৫ মাসে অন্তঃসত্বার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। পরে ওই নারী তার পরিবারকে জানান ৫ মাস আগে গ্রামের গৃহশিক্ষক একেএম চাঁন মিয়া তাকে প্রতিবন্ধী ভাতা দেওয়া কথা বলে দুই দিন ধর্ষণ করে।

দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুনীল কুমার কর্মকার জানান, প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষনের ঘটনায় তার মা বাদি হয়ে বুধবার একটি মামলা করেছেন। ওই রাতেই আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আসামীকে আদালতে পাঠানো হয়। বিজ্ঞ বিচারক তাকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন।