ঢাকায় ঘূর্ণি বাতাস, দুপুরের পর ভারী বৃষ্টি

❏ শনিবার, মে ৪, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র প্রভাবে শনিবার সকাল থেকেই বৃষ্টির মুখোমুখি হতে হয়েছে রাজধানীর বাসিন্দাদের। সঙ্গে যোগ হয়েছে ঘূর্ণি বাতাস।

শনিবার (৪ মে) আবহাওয়া অধিদফতরের সকালের ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, ঢাকায় আজ সারাদিনই নিরবচ্ছিন্ন ভাবে বৃষ্টি পড়বে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণও বাড়তে পারে। একইসঙ্গে রয়েছে বজ্রপাতের সম্ভাবনা।

শুক্রবার বিকাল থেকে সারা রাত রাজধানীতে গুঁড়ি গুঁড়ি থেকে মাঝারি বৃষ্টি হয়েছে। তবে ফনি দুর্বল হয়ে যখন বাংলাদেশে ঢুকবে, তখন ঢাকায় ভারী বৃষ্টির হবে বলে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছিল।

এদিকে শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামছুদ্দীন আহমেদ সকাল ১০টার দিকে গণমাধ্যমকে ব্রিফ করেছেন। তিনি জানান, গতকালের মতো আজও ঢাকায় বৃষ্টি থাকবে। দুপুরের পর এই বৃষ্টির মাত্রা আরও বাড়বে।

আবহাওয়া অধিদফতরের ঢাকা বিভাগের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারা দেশের মতো এ বিভাগেও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে। বৃষ্টির কারণে তাপমাত্রা কমে গেছে। আজ তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মতো কমতে পারে। শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকে শনিবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত ঢাকায় বৃষ্টি হয়েছে ৬০ মিলিমিটার।

এর আগে দীর্ঘপথ পাড়ি দিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল সীমান্ত দিয়ে শনিবার সকালে বাংলাদেশে ঢুকেছে ঘূর্ণীঝড় ফণী। সাধারণ ঝড়ে পরিণত হয়ে বর্তমানে এটির অবস্থান উত্তরবঙ্গে।

বেলা পৌনে ১২টার দিকে ঘূর্ণিঝড়টি নাটারের সিংড়া ও সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার মাঝামাঝিতে অবস্থান করছিল। এরপর তা আরও উত্তর ও উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার কথা।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ৫-৬ ঘণ্টা আরো বাংলাদেশের ভূখণ্ডে অবস্থান করবে ঝড়টি। ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে ফণী। আগামীকাল বিকেলের থেকে আবহাওয়া পরিস্থিতি ধীরে ধীরে উন্নতি হবার সম্ভবনা রয়েছে। এরপর উত্তর ও উত্তর-পূর্ব দিক হয়ে ভারতের আসাম মেঘালয়ে প্রবেশ করবে। ঘূর্ণিঝড় ফণী’র প্রভাবে সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি, বজ্রবৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়া বইছে।