🕓 সংবাদ শিরোনাম

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৩৩ জনের মৃত্যুচট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভা

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

সরকারের ব্যর্থতায় ঘূর্ণিঝড়ে ১৫ জনের মৃত্যু: রিজভী


❏ শনিবার, মে ৪, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ঘূর্ণিঝড় ফণী থেকে মানুষকে নিরাপদে রাখতে সরকার ব্যর্থ হওয়ায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

শনিবার তাঁতী দল আয়োজিত এক প্রতীকী অনশনে অংশ নিয়ে রিজভী এসব কথা বলেন। রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে বেলা ১১টায় শুরু হয়ে ১২টায় এ অনশন শেষ হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা সব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ অনশন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

রিজভী বলেন, উপকূলীয় আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সরকার কোনো খাবারের ব্যবস্থা করেনি এবং সেখানে যে রান্না করে খাবে সেটিরও কোনো জায়গা সংকুলান হচ্ছে না।

তিনি বলেন, হাজার হাজার মানুষজনকে ওই ছোট্ট জায়গায় আশ্রয় নিতে হয়েছে। এই যে সাইক্লোন সেন্টার সেখানে এত মানুষের নিজে রান্না করে খাবারের ব্যবস্থা নেই। এরজন্য সরকারেরই ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা।

ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সরকারের কোনো ব্যবস্থাপনা নেই মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, কয়েকদিন ধরে আমরা বলছি, ঘূর্ণিঝড় ধেয়ে আসছে। সরকার তার কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। আমরা আমাদের নেতা-কর্মীদেরও বলেছি, উপদ্রুত মানুষদের সাহায্যের জন্য, সহায়তার জন্য।

উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ে ১৫ জনের মৃত্যুর খবরও দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, সরকারি হিসেবে যে সংখ্যা ৪। রিজভী বলেন, ঘূর্ণিঝড় ফণীতে এ পর্যন্ত ১৫ জন মানুষ মারা গেছে। কিন্তু মারা যাওয়ার কথা ছিল না। আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে হাজার হাজার মানুষ রাখা হয়েছে। কিন্তু সেই হাজার হাজার মানুষের জন্য রান্না করার কোনো ব্যবস্থা নেই। এই ব্যবস্থা কে করবে? সরকারকেই করতে হবে। কিন্তু সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর কোনো ব্যবস্থাপনা নেই। অথচ সরকারের মন্ত্রী-এমপিরা বড় বড় কথা বলছেন।