কুমিল্লায় সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৮: বিচারের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

৫:৩২ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৯ চট্টগ্রাম
NIHITO

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের লালমাইয়ে তিশা পরিবহনের বেপরোয়া গতির যাত্রীবাহী বাসের চাপায় একই পরিবারের ৬জন সহ ৮জন নিহতের ঘটনায় বাসচালক ও মালিকের বিচার এবং নিহত-আহতের ক্ষতিপূরণ দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। এসময় বিক্ষোভ মিছিল সহকারে সড়ক অবরোধ করেছে বিক্ষুব্দ এলাকাবাসী।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের নাথেরপেটুয়া এলাকায় নাঙ্গলকোট ও মনোহরগঞ্জ উপজেলার শতশত মানুষ বিক্ষোভ কর্মসূচীতে অংশ নেন।

মহাসড়ক অবরোধকালে বক্তারা বলেন- সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৮জনের প্রাণহানি এবং দূর্ঘটনায় বেচেঁ যাওয়া শিশু রিফাত গুরুত্বর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। তাদের সমবেদনা জানাতে বা দেখতে আজ পর্যন্ত কেহ যাননি। এমনকি মামলাটি তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দমকি দিচ্ছে বাস মালিক কর্তৃপক্ষ। অনতিবিলম্বে এ সড়ক দূর্ঘটনার বিচার ও ক্ষতিপূরণ না পেলে এলাকাবাসি বৃহত্তর কর্মসূচী দেয়ার ঘোষণা দেন। এসময় এলাকাবাসির পক্ষে বক্তব্য রাখেন-খোকন কোম্পানি, হেলাল ভূইঁয়া, দীনু মেম্বার, কামাল হোসেন মেম্বার, মাস্টার আবদুর রহীম ও হারুনুর রশিদ চৌধুরী সহ আরো অনেকে।

এসময় নিহত সিএনজি চালিত অটোরিকশা চারক জামালের স্ত্রী ছালেহা আক্তার, মেয়ে ফাহিমা আক্তার (১৪), ছেলে রাকিব হোসেন (১২), আবু রায়হান (৫), মেয়ে মীমতাহা আক্তার (৩), নিহত জসিম উদ্দিনের ভাই মোহাম্মদ হোসেন, মোহাম্মদ মহসিন, নাছির উদ্দিন ও ভাতিজা সোহাগ সহ এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য, গত ১৮আগষ্ট দুপুরে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লাকসামগামী তিশা পরিবহন বাস (রেজিঃ নং-ঢাকা মেট্টো-ব-১৪-৭১৩৬) ও নাঙ্গলকোট থেকে লালমাইমুখী সিএনজি চালিত অটোরিকশা (রেজিঃ নং-কুমিল্লা-থ-১১-৭৫০৫) গাড়ীটি কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কে লালমাই জামতলী এলাকায় তিশা পরিবহনের বাসটি একটি ট্রাককে অভারটেক করতে গিয়ে তিশা পরিবহন বাস ও বিপরীত দিক থেকে যাত্রীবাহী সিএনজি গাড়ী মুখামুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজিতে থাকা নারী শিশুসহ ৮ জন যাত্রী নিহত হয়। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয় রিপাত নামের এক শিশু।

Sherpur ভারতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে যুবক আটক

মঙ্গলবার, অক্টোবর ২০, ২০২০