টাঙ্গাইলে স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রীর মৃত্যু, স্বামীসহ আটক ৩

◷ ১০:৩৯ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯ ঢাকা
Tangail

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্বামীর নির্যাতনে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার দুপুরে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত রেহেনা খাতুন (২৫) উপজেলার গোহালিয়াবাড়ী ইউনিয়নের বেলটিয়া আলিপুর গ্রামের ভ্যানচালক আবু বকরের স্ত্রী। এ ঘটনায় স্বামী আবু বকর, আবু বকরের বড় ভাই ইউসুফ ও ছোট ভাই আল আমীনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহতের ৫ বছর ও ৭ মাসের দুইটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ রোববার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শনিবার ২৮ সেপ্টেম্বর দিনগত রাতে পারিবারিক কলহের এক পর্যায়ে রেহেনাকে বেধড়ক মারধর করেন স্বামী আবু বকর। এতে রেহেনার অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাতেই কবিরাজ দিয়ে চিকিৎসা করান। অবস্থার উন্নতি না হলে স্থানীয় বেরিপটল বাজারের পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় রেহেনাকে। পরে রোববার সকালে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ওই গৃহবধূকে ভর্তি করানো হয়। রোববার দুপুরে সেখানে তার মৃত্যু হয়। কৌশলে নিহতের স্বামীর পরিবার লাশ হাসপাতাল থেকে নিয়ে যায়। নিহত গৃহবধু সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার বারদুল চর গ্রামের জহুর উদ্দিনের মেয়ে।

এ ব্যাপারে কালিহাতী থানার ওসি হাসান আল মামুন বলেন, পুলিশ রোববার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত গৃহবধূর গলা ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় তিন জনকে আটক করা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন বলে ওসি জানান।