টাঙ্গাইলে মানি লন্ডারিং এর টাকাসহ গ্রেফতার ৩

৩:৫৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের বাসাইলে মানি লন্ডারিং বা অর্থ পাচার পরিচালনা করার অপরাধে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২ এর সদসরা। সোমবার রাতে উপজেলার বাসুলিয়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার র‌্যাব-১২, সিপিসি-৩, টাঙ্গাইল কোম্পানীর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার শফিকুর রহমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মির্জাপুর উপজেলার পাড়দিঘী গ্রামের কাদের মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া (২০), ওয়াহেদ খানের ছেলে শাকিল খান (১৯) এবং টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ধয়াট গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে জুয়েল রানা (৩৫)।

এ সময় তাদের নিকট থেকে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে দেশে পাঠানো ৪ লাখ ৪৪ হাজার ৫শ’ টাকা, ৪টি মোবাইল ফোন, ১টি ট্যাব, ১টি মোটর সাইকেল, ১টি টাকা বিতরণ তালিকা, ১টি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

কোম্পানী কমান্ডার শফিকুর রহমান জানান, উপজেলার বাসুলিয়ায় চেক পোস্ট পরিচালনাকালে একটি মোটরসাইকেলে দুইজন আরোহী দ্রুতগতিতে যাচ্ছিল। এ সময় তাদের থামার জন্য সংকেত দিলে তারা তা না থামিয়ে চলে যায়। পরে তাদের পিছু ধাওয়া করে তাদের কাছে থাকা একটি ব্যাগ থেকে ৪ লাখ ৪৪ হাজার ৫শ’ টাকা পাওয়া যায়।

টাকা সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা জানায়, এই টাকা বিদেশ থেকে পাঠিয়েছে। আমরা সেটা পৌঁছিয়ে দিতে যাচ্ছি। আমরা মহাজনের নিকট থেকে এই টাকা নিয়ে সেটা তালিকা অনুসারে প্রত্যেক গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেয়া আমাদের কাজ। এরপর তাদের দিয়ে মহাজনের সাথে যোগযোগ করে মহাজনকে আসতে বলা হলে তিনি তার প্রধান সহযোগী জুয়েল রানাকে পাঠিয়ে দেয়। পরে জুয়েলকেও গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে দেশে পাঠানো চার লাখ ৪৪ হাজার ৫শ’ টাকা, ৪টি মোবাইল ফোন, ১টি ট্যাব, ১টি মোটর সাইকেল, ১টি টাকা বিতরণ তালিকা, ১টি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে মানি লন্ডারিং এর মাধ্যমে অবৈধভাবে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে প্রবাসীদের পরিবারের কাছ থেকে কমিশনের ভিত্তিতে নগদ টাকা সরবরাহ করতো। তাদের বিরুদ্ধে বাসাইল থানায় মানি লন্ডারিং আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Loading...