সংবাদ শিরোনাম
বন্ধ হয়ে গেল জামালপুরের পিসিআর ল্যাব | বৃষ্টির সময় ঘরে ডেকে ৯ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, লম্পট গ্রেপ্তার | দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় ২য় খারাপ অবস্থানে ঢাকা | ধর্ষণের পর প্রেমিকাকে বন্ধুদের হাতে তুলে দিল প্রেমিক, অতঃপর … | স্পেনে কর্মহীন প্রবাসীদের মাঝে ভালিয়েন্তে বাংলার খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যহত | হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোক, মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন | সবজি বিক্রি করতে হাটে যাওয়ার পথে মাইক্রোবাস চাপায় কৃষকের মৃত্যু | বিক্ষোভে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা | মসজিদের ইমামের গলায় জুতার মালা পড়ানো সেই চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার | ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থা ভালো না |
  • আজ ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

গাড়িতে ঘুমিয়ে আছেন এসআই, উঁকি দিচ্ছে টাকার বান্ডিল!

৭:০৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৯ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- গাড়ির মধ্যে ঘুমে আচ্ছন্ন নারায়ণগঞ্জের ডিবি পুলিশের এক কর্মকর্তা। পাশে ফাইল ও ওয়াকিটকি। তার পিঠের নিচে উঁকি দিয়ে বের হয়ে আছে বেশ কিছু টাকার বান্ডিল। সেই টাকার বান্ডিলের ওপর আয়েশি ঘুমে আচ্ছন্ন পুলিশ কর্তা।

সেই মুহূর্তের একটা ছবি সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমে বুধবার সকাল থেকে ভাইরাল হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ভাইরাল হওয়া ছবির সেই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন নারায়ণগঞ্জ পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগে কর্মরত উপপরির্শক (এসআই) মো. আরিফ।

গত ৪ নভেম্বর আলোচিত জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদকে প্রত্যাহারে রেশ কাটতে না কাটতেই গোয়েন্দা পুলিশের এস আইয়ের এমন ছবি প্রকাশ পাওয়ায় নানা প্রশ্ন সৃষ্টি হয়েছে মানুষের মাঝে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত মঙ্গলবার রাত থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ ও এর আশেপাশের এলাকায় দায়িত্ব পালন করেন এসআই আরিফসহ এক দল ডিবি পুলিশ। বুধবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জে তাদের ব্যবহৃত একটি গাড়ি রাস্তার পাশে পার্কিং করা ছিল। ওইসময় একাধিক ব্যক্তি গাড়ির ভেতরের কয়েকটি ছবি তোলেন। এ সময় দেখা যায় এসআই আরিফ বিপুল পরিমাণ টাকার ওপর ঘুমিয়ে ছিলেন। এই টাকাগুলো বান্ডিল আকারে দেখা যায়। ১০০, ৫০০, এক হাজার টাকার নোটের বেশ কয়েকটি বান্ডিল ছিল সেখানে। তবে বান্ডিলগুলোতে মোট টাকা ছিল তা জানা যায়নি।

তবে এ বিষয়ে এসআই আরিফ বলেন, ‘ভাইরাল হওয়া ছবিটা আজকের নয়। ছবিগুলো আজ থেকে ৫/৬ মাস আগের। আর টাকাগুলো আমার মায়ের চিকিৎসার জন্য এক বন্ধুর কাছ থেকে ধার নিয়েছিলাম।’

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশাসন মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, এমন একটি ছবি প্রকাশ পাওয়ায় তা পুলিশের নজরে এসেছে। এ বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।