সংবাদ শিরোনাম

জাল বিমান টিকিট, জাল ভিসাসহ মানব পাচারকারী গ্রেপ্তারসালথায় তান্ডব: সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেপ্তারপটুয়াখালীতে পরিত্যক্ত ড্রোন উদ্ধার, মালিকানা দাবি বেলজিয়াম নাগরিকের৪ দিন পর একশোর নিচে মৃত্যুপ্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার; পরিবারের দাবি পরিকল্পিতভাবে হত্যাস্বামী ঘুমে, স্ত্রী ঝুলে আছে ফাঁসির রশিতেহেফাজতের প্রতি দুর্বলতা দেখানোর সুযোগ নেই: নানকমাদারীপুর সদর হাসপাতালে টিকার জন্যে দীর্ঘ লাইন, স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেইঅ্যাডিশনাল এসপি শামিম আমার গায়ে হাত তুলেছে: কাদের মির্জাকোভিড ভ্যাকসিনকে বিশ্বজনীন পণ্য হিসেবে ঘোষণা করা উচিত: প্রধানমন্ত্রী

  • আজ মঙ্গলবার। গ্রীষ্মকাল, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। বিকাল ৫:৩৫মিঃ

‘দেশকে বাকশাল থেকে রক্ষা করেছিলেন জিয়াউর রহমান’- খন্দকার মোশারফ

৯:১০ অপরাহ্ন | শুক্রবার, নভেম্বর ৮, ২০১৯ জাতীয়
mosarof

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, স্বাধীনতার পরে দেশে যে বাকশাল সৃষ্টি করা হয়েছিল তার থেকে এই দেশকে রক্ষা করেছিলেন জিয়াউর রহমান।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে মহানগর নাট্যমঞ্চে ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

মোশারফ হোসেন বলেন, ঠিক এখন আবারো একটি বাকশাল তৈরী করেছে আওয়ামীলীগ। দেশে আজ দুর্নীতির রোল মডেল হয়েছে, অত্যাচার অনাচারের রোল মডেল হয়েছে। এ দেশের সমাজের সর্বস্তরের জায়গায় পচন ধরেছে। এই অনির্বাচিত সরকারের হাত থেকে আমাদের দেশকে রক্ষা করতে হবে। তাই আমাদের আন্দোলনে নামার জন্য সবাইকে প্রস্তুত হতে হবে।

এ সময় সরকারের উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, ব্যাংক থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করেছেন এর হিসাব কোথায়? শেয়ার বাজার থেকে হাজার হাজার টাকা লুট করে নিয়েছেন তার হিসাব কোথায়? তার হিসাব থাকবে না এ কারণেই যে তার কেউ আপনাদের মন্ত্রী, কেউ আপনাদের উপদেষ্টা, আবার কেউ আপনাদের আপনজন।

ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি করতে হলে গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হলে, আমার অধিকারগুলোকে ছিনিয়ে আনতে হলে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, রাস্তায় নামতে হবে। এর বিকল্প নেই বন্ধুগন।

তিনি বলেন, কোন ফ্যাসিস্ট শক্তিকে এককভাবে পরাজিত করা যায় না। সকল দেশপ্রেমিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হয় এবং আমরা সেই পথেই যাচ্ছি। আমরা মনে করি সমস্ত দেশপ্রেমিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে এই একনায়তান্ত্রিক ফ্যাসিস্ট সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে সমর্থ হব।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, বেগম সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায়, আহমদ আজম খান, শমসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল প্রমুখ।