• আজ ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলে নানীর সাথে নদীতে গোসল করতে গিয়ে শিশু নিখোঁজ

৭:০৯ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে নানীর সাথে যমুনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজের দুইদিন অতিবাহিত হলেও রব্বানী (৫) নামের শিশুটির সন্ধান পাওয়া যায়নি।

গত বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার পলশিয়া গ্রামের যমুনা নদীতে নানীর সাথে গোসল করতে যায় শিশুটি।

শিশু রব্বানী টাঙ্গাইল শহরের পশ্চিম আকুরটাকুরপাড়া এলাকার হাবিল উদ্দিনের ছেলে এবং উপজেলার পলশিয়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের নাতী।

শনিবার (৯ নভেম্বর) দুপুর পর্যন্ত পলশিয়ার যমুনা নদীতে ময়মনসিংহের ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল শিশুটির কোন খোঁজ পায়নি। এরআগে শুক্রবার রাত ১০টা পর্যন্ত ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে তার নানীর সাথে যমুনা নদীতে গোসল করতে যায় রব্বানী। গোসলের এক পর্যায়ে তার নানীর অগোচরে রব্বানী পানিতে পড়ে ডুবে যায়।

পরে খবর পেয়ে স্থানীয়রা অনেক খোঁজা খুঁজি করে না পেয়ে ভূঞাপুর ফায়ার সার্ভিসকে অবহিত করে। পরে ভূঞাপুর ফায়ার সার্ভিসের কোন ডুবুরী না থাকায় ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলকে অবহিত করা হয়। শুক্রবার ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল রাত ১০টা পর্যন্ত যমুনা নদীতে তল্লাশী করে শিশু রব্বানী কে উদ্ধার করতে না পেরে ফিরে যায়।

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলের লিডার আতাউর রহমান জানান, যমুনা নদীতে ২৫ ফুট পানির নিচে পর্যন্ত গিয়ে তল্লাশী চালানো হয়েছে কিন্তু শিশুটির কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। পানির গভীরতার আরো বেশী থাকায় তলদেশ পর্যন্ত গিয়ে তল্লাশী করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া নদীতে তীব্র ¯্রােত থাকায় তল্লাশী কাজে বিঘœ ঘটছে। দুই একদিনের মধ্যে মধ্যে শিশুর মরদেহ ঘটনাস্থলের ১কিলোমিটার ভাটিতে ভেসে উঠার সম্ভাবনা রয়েছে।

ভূঞাপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসলাম হোসাইন জানান, নিখোঁজ রব্বানীকে উদ্ধারের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েও উদ্ধার করা যায়নি।

Loading...