সংবাদ শিরোনাম

গাছে মোটরসাইকেলে ধাক্কা, ২ ক‌লেজ ছা‌ত্রের মৃত্যুহেফাজতিরা ধর্মকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় আসতে চায়: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে ককটেল হামলাশাহজাদপুরে থানা পুলিশের অভিযানে ইউপি সদস্যসহ ৯ জুয়াড়ি আটকখালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ফরিদপুরে দোয়াওবায়দুল কাদেরকে কোম্পানীগঞ্জে ঢুকতে না দেওয়ার ঘোষণা কাদের মির্জারকরোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন এমপি ফারুক চৌধুরীর মাফরিদপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে কলেজ শিক্ষার্থীর ওপর হামলামামুনুল হকের কথিত শ্বশুরকে নোটিশ দেওয়ায় আ.লীগ নেতাদের হত্যার হুমকির অভিযোগ!ভারতের পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চম দফায় ৪৫ আসনে ভোটগ্রহন চলছে

  • আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কোহলির সঙ্গে পুরোপুরি একমত নন পাপন

১১:২৫ অপরাহ্ন | সোমবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৯ খেলা
papon

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ ইডেনে প্রথম টেস্টে ইনিংসে হারের পর ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি বাংলাদেশের পক্ষেই কথা বলেছিলেন। ভালো খেলতে হলে নিয়মিত টেস্ট খেলার বিকল্প নেই এবং ঘরোয়া লিগেও দিতে হবে মনোযোগ।

‘আপনি দুই টেস্ট খেলার পর আরও দেড় বছর পর যদি আবার খেলেন, তাহলে কীভাবে চাপ সামলাবেন, সেটা বুঝতে পারবেন না। শুধু তাই নয়, টেস্টে ভালো করতে হলে মনোযোগ দিতে হবে ঘরোয়া লিগেও।’

কোহলির এই পরামর্শের সাথে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কিছুটা একমত হলেও পুরোপুরি মানতে পারছেন না কোহলির কথা। বরং ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোযোগ দিলেই সব সমস্যার সমাধান হবে, এমন মনে করার কারণ নেই বলছেন বিসিবির বিগ বস।

সন্ধ্যায় কলকাতা থেকে ফিরে গণমাধ্যমকে পাপন জানান, এটা এক দিক দিয়ে ঠিক। আবার পুরোপুরি ঠিক না।

‘ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোযোগ দিয়ে লাভটা কি হবে। আপনি ধরেন আমরা এখন যে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলছি স্পোর্টিং উইকেট করছি, বাউন্সি করছি পেসারদের জন্য। একটায় অনূর্ধ্ব-১৯ দল টুর্নামেন্ট খেলছে, সিরিজ খেলছে। আবার ইমার্জিং কাপ খেলছে। জাতীয় দল নাই। লিগে যে সমস্ত বোলার আছে এদের সাথে ব্যাটিং করে এরা কি শিখবে? আপনি কার সাথে তুলনা করছেন? আমাদের তো ওরকম বোলারও লাগবে। খালি পিচ তৈরি করলে তো হবে না। যাদের বল খেলে অভ্যস্ত হতে হবে। ওই মানের বোলার তো লাগবে। ওয়ার্ল্ড ক্লাস বোলারদের সাথে খেলে এসেছে এবার। সো আমাদের বোলিংয়ের ধারটাও বাড়াতে হবে।’

তবে পাপন এ নিয়ে আশ্বাস দেন, দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করছে বিসিবি। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই এর ফল দেখা যাবে বলেও জানান তিনি।

‘আমরা এটা নিয়ে ভাবছি। এটা নিয়ে সত্যি সত্যি একটা পরিকল্পনা করেছি। যেটা আপনারা দুই তিন মাসের মধ্যে দেখবেন। টেস্টে এই ধরণের পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে আমরা স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা করেছি। আমার মনে হয় এটা ব্যাটিংয়ে কাজে দেবে।’