সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মজুতদারদের মগজধোলাই দিতে হবে: রাষ্ট্রপতি

১০:৫৪ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- মজুতদার, মুনাফালোভীদের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ হলো একটা আজব দেশ। ছোটবেলা থেকে দেখে আসছি নতুন ধান উঠলে চালের দাম কমে যায়। এখন বিভিন্ন দিকে ধান উঠছে। কৃষকরা হাহাকার করছে। ধানের দাম নেই। অথচ ব্যবসায়ী আর মজুতদাররা চালের দাম প্রতি কেজিতে দু-তিন টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে!’

‘এটা আসলে খুব দুঃখজনক। এখানে আমি কী বলবো? পকেটমারদের যেমন গণধোলাই দেওয়া হয় তেমনি এদেরও; আসলে এদের মগজধোলাই দিতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ সমাবর্তনে সভাপতি হিসেবে বক্তৃতাকালে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ একটি অপার সম্ভাবনাময় দেশ। এদেশে রয়েছে বিপুল মানব সম্পদ, উর্বর কৃষিভূমি এবং সম্ভাবনাময় প্রাকৃতিক সম্পদ। জনবহুল এ দেশকে সমৃদ্ধশালী করতে হলে প্রয়োজন পরিকল্পিত উপায়ে বিদ্যমান সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার।’

আবদুল হামিদ বলেন, ‘বিশ্বায়নের এই যুগে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে আমাদের জ্ঞান ও দক্ষতাকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, আমরা আজ স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের নাগরিক। আমাদের আত্মমর্যাদা সমুন্নত রাখতে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হবে। আমি আশা করি, আজকের নবীন প্রকৌশলীরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে উপলব্ধি করবে।’

গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘জীবনের আসল সংগ্রাম এখন থেকে শুরু হবে। আজকের এ সনদপ্রাপ্তি সেই সংগ্রামে অবতীর্ণ হবার স্বীকৃতিপত্র। এ সনদের সম্মান তোমাদের রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে, তোমাদের এ অর্জনে দেশের মানুষের অনেক অবদান রয়েছে। তোমরা তোমাদের সেবা, সততা, নিষ্ঠা ও দেশপ্রেম দিয়ে এ সনদের মান সমুজ্জ্বল রাখবে। কর্মক্ষেত্রে তোমরা পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকো না কেন; মাতৃভূমি এবং এ দেশের জনগণের কথা কখনও ভুলবে না।

অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে ছিলেন- বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এ.কে. আজাদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

Loading...