নয়াদিল্লিতে কংগ্রেসের ভারত বাঁচাও সমাবেশ

৯:১১ অপরাহ্ণ | শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
varot

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের প্রতিবাদে উত্তাল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলো। নতুন করে বিক্ষোভ ছড়িয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। দিল্লির রামলীলা ময়দানে, ‘ভারত বাঁচাও’ সমাবেশ করেছে কংগ্রেস।

কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধী সমাবেশে জনগণকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কংগ্রেস পিছু হটবে না এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দেশ ও দেশের গণতন্ত্র বাঁচানোর দায়িত্ব পালন করে যাবে।

সোনিয়া গান্ধী বলেন, দেশে এখন ‘অন্ধের নগরী চৌপাট রাজা’র মতো অবস্থা বিরাজ করছে। সারা দেশের মানুষের একটিই প্রশ্ন কোথায় ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশ’?

তিনি বলেন, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে লড়াই করবে সারা দেশ। কারণ এটি ভারতের হৃদপিণ্ডে আঘাত হেনেছে।

কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট বলেন, অন্যায় সহ্য করা সবচেয়ে বড় অপরাধ। গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষা করার উপযুক্ত সময় এখন। দেশকে রক্ষা করার সময় এসেছে এবং আমাদের এজন্য কঠোর সংগ্রাম করতে হবে। মোদি-শাহ (ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ) সরকার শুধু সংসদ বা সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে কলুষিত করছে না, তারা প্রকৃত বিষয় লুকিয়ে জনগণকে লড়াই করতে বাধ্য করছে। তারা প্রতিদিন সংবিধান লঙ্ঘন করে আবার সংবিধান দিবস উদযাপন করেন।

ঝাড়খান্ডে সমাবেশে বিজেপির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, নাগরিকত্ব আইনের ফলে উত্তর-পূর্ব রাজ্যে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না। কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সহিংসতায় উস্কানিরও অভিযোগ করেন তিনি।

চলমান আন্দোলন পরিস্থিতিতে ভারত সফর বাতিল করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী। নিজ নাগরিকদের উত্তর-পূর্বাঞ্চল এড়িয়ে চলার নির্দেশ দিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইসরায়েল ও ফ্রান্স।

Loading...