• আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ১৩ মে, ২০২১ ৷

‘নুর আলোচনায় থাকতে চায়’- তথ্যমন্ত্রী

tottho
❏ সোমবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের ওপর হামলার ঘটনাকে দুঃখজনক, অনভিপ্রেত ও অগ্রহণযোগ্য বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তবে ভিপি নুর কিছু ঘটনা ঘটিয়ে মাঝেমধ্যেই আলোচনায় থাকতে চায় বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

আজ সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বলেন, ‘প্রথমত যে ঘটনা গতকাল ঘটেছে এটি অত্যন্ত দুঃখজনক, অনভিপ্রেত ও অগ্রহণযোগ্য। আমরা কখনোই এই ধরনের হামলাকে সমর্থন করি না। হামলার পরপরই আমাদের দলের দুজন নেতা জাহাঙ্গীর কবির নানকসহ সেখানে গিয়েছিলেন সমবেদনা জানাতে। তারা দলের অবস্থানের কথা পরিষ্কার করেছেন। দলের সাধারণ সম্পাদকও আজ এ বিষয়ে বলেছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের বক্তব্য একই, আমরা এই ধরনের ঘটনাকে কখনও সমর্থন করি না। যারা এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন, তা নিন্দনীয়।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কিন্তু এখানে আরও কয়েকটি প্রশ্ন থেকে যায়। সেটি হচ্ছে ডাকসুর ভিপি নুর কেন বহিরাগতদের নিয়ে ডাকসু ভবনে গেলেন? এতগুলো বহিরাগতকে নিয়ে সেখানে যাওয়ার কী প্রয়োজনীয়তা ছিল? দ্বিতীয় হচ্ছে, আপনারা দেখেছেন সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য দেশে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র আছে। রাজনৈতিকভাবে সরকারকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ও যারা দেশের পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে চায়, সেই পক্ষ যৌথভাবে দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য, সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য নানা ষড়যন্ত্র করছে।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে এই ধরনের ঘটনা ঘটানো হয়েছে কি না, এই ধরনের ঘটনা ঘটানোর ক্ষেত্রে কোন উসকানি ছিল কি না…আমরা অতীতে দেখেছি ডাকসুর ভিপি নূর এই ধরনের ঘটনার মাধ্যমে আলোচনায় থাকতে চান। ছাত্র সংশ্লিষ্ট বিষয় বাদ দিয়ে ভারতের প্রবাহ নিয়ে সেখানে আন্দোলন করার চেষ্টা…এগুলো তো ডাকসুর কাজ নয়। ডাকসুর কাজ হচ্ছে ছাত্রদের বিষয় নিয়ে কথা বলা।’

এই হামলার বিষয়ে তদন্ত হবে কি না জানতে চাইলে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘অবশ্যই, এটার তদন্ত হবে।’