• আজ ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদকে ‘বাচালমন্ত্রী’ বললেন নুর

❏ বুধবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ
nurr

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদকে ‘বাচালমন্ত্রী’ হিসেবে আখ্যায়িত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর বলেন, ‘সরকারের আরেক মন্ত্রী রয়েছেন, বাচালমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, তিনি বলেছেন ডাকসুতে কেন বাহিরাগত নিয়ে ভিপি ঢুকল? ডাকসুতে ভিপি কাকে নিয়ে ঢুকবে সেটা কী বাচালমন্ত্রী ঠিক করে দেবেন? আমার সংগঠনের নেতাকর্মীরা থাকবে না? এটা থেকে একটা বিষয় স্পষ্ট যে, হামলায় সরকারের ইদ্ধন ছিল।’

ভিপি নুর বলেন, ‘তিনি (হাছান মাহমুদ) কেন এমন কথা বলবেন। যেখানে আক্রান্ত হয়ে ছেলে-পুলে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে আর তিনি বলছেন আমি কেন ভারতে বিষয় নিয়ে কথা বলবো, ডাকসুতে কেন বহিরাগত নিয়ে যায়? তিনি তো সরকারের একজন মন্ত্রী। এটা দ্বারা পরোক্ষ নির্দেশ করে যে সরকারের ইন্ধন থাকতে পারে এই হামলায়।’

আজ মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় গণমাধ্যমকে কাছে এক সাক্ষাতকারে তিনি এসব কথা বলেন। হাসপাতালের তিন তলার ৩৫ নম্বর কেবিনে চিকিৎসা চলছে আহত নুর ও তাঁর আনুসারীদের।

এর আগে রোববার দুপুর পৌনে ১টার দিকে ডাকসু ভবনের নিজ কক্ষে হামলার শিকার হন ভিপি নুর। তাণ্ডবের ঘটনাটির কয়েকটি ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

যেখানে দেখা গেছে, হামলা-ভাঙচুরে ভিপি নুরসহ আটজন আহত হয়েছেন। হামলার পর আহত ডাকসু ভিপি নুরুল হক অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এছাড়া ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহবায়ক রাশেদ খান, ফারুক হোসেনসহ অন্যদের সাহায্য চেয়ে আকুতি জানাতে দেখা গিয়েছে।

ভিডিওতে বাংলাদেশে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ নেতা রাশেদ খানকে বলতে শোনা গেছে, ‘শাহবাগ থানা-পুলিশের সাহায্য কামনা করছি। এখানে আমাদের সবার অবস্থা খারাপ।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ডাকসু ভবনের মূল ফটক বন্ধ করে নুরের ওপর লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করা হয়। এছাড়া বাইরে থেকেও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল ছোড়েন। হামলায় অন্তত ৩২ জন আহত হয়েছেন।

আহতের চিকিৎসার জন্য ৯ সদস্যের চিকিৎসা বোর্ড গঠন করা হয়েছে।