বাবার মৃত্যুবার্ষিকী পালন ঘিরে দুই ভাইয়ের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৩০


❏ বুধবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মেহেদী হাসান সোহাগ, স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর- মাদারীপুরের রাজৈরে বাবার মৃত্যুবার্ষিকীর দাওয়াত দেওয়াকে কেন্দ্র করে আপন দুই ভাইয়ের লোকজনের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে মহিলাসহ উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয়েছে।

বুধবার সকালে উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের সত্যবর্তী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ১০ জনকে আটক করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের সত্যবর্তী গ্রামের মৃত মজিদ ঘরামীর মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে তারই বড় ছেলে ফারুক ঘরামী খাওয়া দাওয়ার আয়োজন করে। কিন্তু বিপত্তি বাধে দাওয়াত দেয়াকে কেন্দ্র করে আপন দুই ভাই ফারুক ঘরামী ও খায়রুল ঘরামীর মধ্যে।

এরই জের ধরে এক পর্যায় আপন দুই ভাইয়ের লোকজনের মধ্যে মঙ্গলবার বিকালে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকালে দুই ভাইয়ের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মহিলাসহ ৩০জন আহত হয়।

মারাত্বক আহত ছরোয়ার মাতুব্বর (৫০), নুরু ঘরামী (৪৫), কাঞ্চন বিবি (৯০), জেসমিন বেগম (৩৫), সাহাবুদ্দিন মাতুব্বর (৪৮), রেজাউল মাতুব্বর (৪৫) কে রাজৈর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের মধ্যে ৪ জনের অবস্থা গুরুতর। এছাড়া প্রায় ১০ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফারুক ঘরামী বলেন, সম্পুর্ণ দোষ খায়রুলের লোকজনের, আমার লোকজনের মধ্যে কোন সমস্যা ছিল না। অন্যদিকে খায়রুল ঘরামী বলেন, আমার লোকজনের সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে এবং আমার লোকজনের গায়ে হাত দিয়েছে। তাই আজ এই সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খোন্দকার শওকত জাহান বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় এ পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে।