‘ভালো থাকুক আমার সোনার তরী ও অচিন পাখি’

❏ শনিবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা-  বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে নতুন যুক্ত হওয়া সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৯ সিরিজের নতুন দুটি উড়োজাহাজ ‘সোনার তরী’ ও ‘অচিন পাখি’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) সকালে উদ্বোধনের পর কুর্মিটোলায় এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী জানান, ‘অচিন পাখি’ এই নামটি রেখেছেন প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট কন্যা শেখ রেহানা।

এসময় তিনি বাংলাদেশে বিমান ও বিমানবন্দরের উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন। ভাষণ শেষ করার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ভালো থাকুক আমার সোনার তরী ও অচিন পাখি।’

উল্লেখ্য, ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনের হিথ্রো ও ম্যানচেস্টার বিমানবন্দরে চলাচল করবে নতুন এ দুটি উড়োজাহাজ।

গত সেপ্টেম্বরে চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমানের জন্য আরও নতুন দুটি ড্রিমলাইনার কেনার ঘোষণা দেন। মূলত প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহেই এ দুটি উড়োজাহাজ কিনেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

পরে এক ব্ক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দুটো বিমান আমাদের নিজস্ব অর্থে অর্থাৎ রিজার্ভের টাকায় কেনা হয়েছে। এটুকু কেনার মতো সক্ষমতা আমরা অর্জন করেছি। এ বিমানগুলো দায়িত্বশীলতার সাথে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

অত্যাধুনিক এই উড়োজাহাজ দুটি যুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়ালো ছয়টিতে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ বিমানের বহরে ড্রিমলাইনার ‘আকাশবীণা’ ও ‘হংসবলাকা’ এবং চলতি বছরে ‘গাঙচিল’ ও ‘রাজহংস’ সংযুক্ত হয়। বিমানের সবগুলো ড্রিমলাইনারের নাম-ই দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির উড়োজাহাজ ড্রিমলাইনার একটানা ১৬ ঘণ্টার বেশি উড়তে পারে। অন্য উড়োজাহাজের চেয়ে এর জ্বালানি খরচও ২০ শতাংশ কম।