🕓 সংবাদ শিরোনাম

রোজিনা ইসলামের ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার টুঁটি চেপে ধরার শামিল: টিআইবিসাংবাদিক রোজিনা কারাগারেদুর্নীতি তুলে ধরাই কাল হয়েছে রোজিনার: মির্জা ফখরুলস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনলাইন ব্রিফিংও বয়কটচট্টগ্রামে আরও ৭০ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৫কারাগারে বাড়তি নিরাপত্তায় বাবুল আক্তারসাংবাদিক রোজিনাকে হয়রানি ও হেনস্থার প্রতিবাদে রাঙামাটি প্রেসক্লাবের মানববন্ধনসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের প্রতিবাদে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের মানববন্ধনঝালকাঠিতে জমি নিয়ে বিরোধে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা,আটক-২মাত্র ২০ ঘন্টায় ১০ লক্ষ দর্শক পেল“ তাকে ভালোবাসা বলে” নাটকটি

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

সামনে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা আসছে: মান্না


❏ রবিবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯ জাতীয়

রবিউল ইসলাম, সময়ের কণ্ঠস্বর- সামনে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা আসছে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, সরকার যদি ক্ষমতা থেকে নেমে না যায় তাহলে সামনে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া হবে।

রোববার (২৯ ডিসেম্বর) বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে 'ভোট ডাকাতির' প্রতিবাদে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ২০১৮ সালে কোনো ভোট হয়নি, আওয়ামী লীগ গায়ের জোরে ক্ষমতা ক্ষমতা নিয়েছে। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, গায়ের জোরের এই ক্ষমতা আমরা মানি না। এই ভোট মানি না, আপনাকে মানি না, আপনার সরকারকেও মানি না।

সংসদ বাতিল করে নতুন নির্বাচন দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আজকে আমাদের ধিক্কার জানাবার দিন। বাঙালি জাতির ইতিহাসে এত বড় কলঙ্কের দাগ আগে কখনো লাগেনি, যেটি ২৯ ডিসেম্বর রাতে লেগেছে। পৃথিবীর ইতিহাসে আগের রাতেই ভোট হয়ে যায় এতবড় ভোট ডাকাতি কোনো দেশে হয়নি।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে খুবই গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করবার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কৃতিত্বের দাবি করবার অধিকার আছে। তেমনি বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচাইতে কলঙ্ক রচনা করবার ইতিহাসও সেই দলটির আছে। দল হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এক বছরে যে দুঃশাসন কায়েম করেছে সেটা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসুতে হামলার ঘটনায় তিনি বলেন, 'বিশ্ববিদ্যালয় মারামারি হয়েছে সবাই দেখেছে। সিসি ক্যামেরা আছে সেটা ছবি তুলেছে সেই ছবিগুলো কোথায়? এখন উল্টো নুর-রাশেদের নামে মামলা হয়।'

এ সময় ভিপি নুর এবং তার অনুসারীদের উপর করা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে মান্না বলেন, হামলা নুরের উপর হয়েছে, নুর কোনো হামলা করেনি। ছাত্র আন্দোলনকে সবাই ভয় করত, এই সরকারও ভয় করে। ডাকসুকে সবাই ভয় করত, এই সরকারও করে।

এদিন বিক্ষোভ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।