• আজ ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্মার্টফোন নিষিদ্ধ করলো ভারতীয় নৌবাহিনী

❏ সোমবার, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
navy

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ নৌঘাঁটি হোক বা নৌবহর কোনও জায়গাতেই আর স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না ভারতীয় নৌবাহিনীর সদস্যরা। নিষিদ্ধ করা হয়েছে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মতো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপও। নিরাপত্তার কারণে এবং গুপ্তচরবৃত্তি রুখতে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় নৌ সেনার তরফ থেকে বলা হয়েছে, সোশ্যাল অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ব্যবহার করা যাবে না মেসেজিং অ্যাপ, নেটওয়ার্কিং, ব্লগিং, হোস্টিং, অনলাইন কেনাকাটার ওয়েবসাইটও।

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে গত ২০ ডিসেম্বর বিশাখাপত্তপনম, মুম্বাই এবং কর্নাটকের কারওয়ার থেকে সাত ভারতীয় নৌসেনাকে গ্রেপ্তার করেছিল অন্ধ্রপ্রদেশ পুলিশ। ‘হানি ট্র্যাপ’-এর শিকার হয়ে পাকিস্তানে তথ্য পাচারের অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। ওই সাতজন ছাড়াও হাওয়ালা কারবারের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা বিশাখাপত্তনমের এক ব্যবসায়ীকে।

অপারেশন ‘ডলফিন নোজ’ নামে ওই তদন্তের সঙ্গে যুক্ত কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার একজন কর্মকর্তা বলেন, আটক হওয়া ওই সাত নৌসেনা ২০১৭ সালে নাবিক হিসেবে বাহিনীতে যোগ দেন। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা বাহিনীর নিয়ম ভেঙে ফেসবুকে অন্য নামে অ্যাকাউন্ট খোলেন। ২০১৮ সালে ফেসবুকের মাধ্যমেই এক নারীর সঙ্গে আলাপ হয় তাদের। সেখান থেকে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। পরে জানা যায়, একজন নন, তিনজন নারী এই ঘটনায় যুক্ত। তারা নৌসেনাদের ব্ল্যাকমেল করে নৌবাহিনীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে হানি ট্র্যাপ-এর ঘটনা এর আগেও ঘটেছে। কিন্তু ভারতীয় নৌসেনায় এমন ঘটনা যথেষ্ট চিন্তায় ফেলে দিয়েছে বাহিনীর শীর্ষ মহলকে। এমন ঘটনা আটকাতে স্মার্টফোন ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো।

সূত্র : আনন্দবাজার