সংবাদ শিরোনাম

পণ্যবাহী ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১খালেদার জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই, হয়নি বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্তওপ্রধানমন্ত্রী কোরআন-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীমির্জাপুরে গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনশনিবার থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনাস্পুটনিক-৫ টিকা একে-৪৭’র মতো নির্ভরযোগ্য: পুতিনডোপটেস্টো রিপোর্ট: স্পিডবোটের চালক শাহ আলম মাদকাসক্তচাঁদপুরে ঐতিহাসিক বড় মসজিদে লক্ষাধিক মুসল্লির সালাতে ‘জুমাতুল বিদা’ রাঙামাটিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ দুই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আটক! আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ : নারীসহ ৯জন আহত

  • আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় নতুন বছরে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিতে প্রস্তুত ৭২ লাখ নতুন বই

৩:০৪ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯ দেশের খবর, রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি- নতুন বছরে নতুন বই, কোমলমতিসহ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরণা যোগাবে। আর এ লক্ষ্যে আগামী ১ জানুয়ারীতেই ‘‘ বই উৎসব” এর মাধ্যমে দেশের সকল প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও দাখিল শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে ধেওয়া হবে নতুন পাঠ্যবই।

এ লক্ষে দেশের সকল জেলা ও উপজেলার মত বগুড়ার সবগুলো উপজেলার অনুকুলে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাছে পৌছে গেছে নতুন বছরের পাঠ্যপুস্তক। ইংরেজি নতুন বছরের প্রথমদিনেই এ জেলায় ৭১ লাখ ৮৮ হাজার ৬ খানা নতুন পাঠ্যপুস্তক বিতরণের জন্য প্রস্তুত রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট জেলা শিক্ষা অফিসগুলো সুত্রে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সরকারের দুটো শিক্ষা মন্ত্রনালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় হতে আগামী নতুন শিক্ষাবর্ষে ১ জানুয়ারীতেই বই উৎসব করার জন্য সারাদেশের ন্যায় বগুড়া জেলার সকল শিক্ষা অফিসের অধীনে চাহিদার বিপরীতে পাঠ্য পুস্তক প্রদান করা হয়েছে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড(এনসিটিবি) ২০২০ সালের জন্য বগুড়া জেলার সদরসহ ১১ উপজেলায় ৭১ লাখ ৮৮ হাজার ৬ কপি বিনামূল্যে পাঠ্য বই বরাদ্দ দেয়। এর মধ্যে জেলার সবগুলো উপজেলার অনুকুলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য ২০ লাখ ৩৫ হাজার ৬’শ ২০ কপি, মাধ্যমিক শিক্ষায় ৩৪ লাখ ৯৫ হাজার ৫৭ কপি, দাখিল মাদ্রাসা শিক্ষায় ৯লাখ ৪৬ হাজার ৭’শ ১৪ কপি, এবতেদায়ী শাখায় ৬লাখ ৪৬ হাজার ৮’শ ৬৮ কপি।

এছাড়াও মাধ্যমিকের ভোকেশনাল শাখার জন্য ১লাখ ৭’শ ৯০ কপি, দাখিল ভোকেশনাল ১ হাজার ৬’শ ৯০ কপি, ভোকেশনাল ট্রেড শাখায় ৩৩ হাজার ৪’শ ৭২ কপি এ্বং ইংলিশ মিডিয়াম শাখার জন্য ১৩ হাজার ২৯৫ কপি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

জেলার দুটো পৃথক শিক্ষা অফিস সুত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, নতুন বছরের জন্য প্রাথমিক, মাধ্যমিক, দাখিল ও এবতেদায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুকুলে প্রথম শ্রেণী থেকে ৯ম শ্রেনী পর্যন্ত ৭১ লাখ ৮৮ হাজার ৬ কপি বিনামূল্যে পাঠ্য বই বরাদ্দের ভিত্তিতে বিতরণের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এরমধ্যে জেলার ১২ উপজেলার মধ্যে বগুড়া সদর উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষায় ৩ লাখ ১৪ হাজার ৭’শ, মাধ্যমিকে ৬ লাখ ১৯ হাজার ১৭৮, দাখিল ১ লাখ ৫২৪, এবতেদায়ী ৮০ হাজার ৯০৮ কপি।

আদমদিঘী উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৩ হাজার ৬৫০, মাধ্যমিকে ১লাখ ৮৮ হাজার ৩’শ, দাখিলে ৩৯ হাজার ৫৬০, এবতেদায়ী ২১ হাজার ৯’শ কপি। কাহালু উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ১ হাজার ৭’শ, মাধ্যমিকে ১ লাখ ৫১ হাজার, দাখিলে ৮০ হাজার ৬৫০, এবতেদায়ী ৫৩ হাজার ৪’শ কপি।

গাবতলী উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৯৯ হাজার ৭৪০ কপি, মাধ্যমিকে ৩লাখ ৩৩ হাজার ৫৫০, দাখিলে ১লাখ ২হাজার ৯৫০, এবতেদায়ী ৭৮ হাজার ৬’শ কপি। দুপচাচিয়া উপজেলায় প্রাথমিকে ৯৩ হাজার ৭৫০ কপি, মাধ্যমিকে ১ লাখ ৮১ হাজার ৯’শ, দাখিলে ৬৬ হাজার ১৫০, এবতেদায়ী ৪০ হাজার ৮’শ কপি। ধুনট উপজেলায় প্রাথমিকে ২ লাখ ১ হাজার কপি, মাধ্যমিকে ৩ লাখ ১৯ হাজার ৫’শ, দাখিলে ৮২ হাজার ৬২০, এবতেদায়ী ৬১ হাজার ২’শ কপি।

নন্দীগ্রাম উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৪ হাজার ৮৮৬, মাধ্যমিকে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৮৩০, দাখিলে ৫২ হাজার ৯২৫, এবতেদায়ী শাখায় ২৩ হাজার ২’শ। শিবগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৫’শ, মাধ্যমিকে ৩লাখ ৬৯ হাজার ৭’শ, দাখিলে ১ লাখ ৩১ হাজার ৩৫০, এবতেদায়ী শাখায় ৮৭ হাজার ৪’শ কপি।

শেরপুর উপজেলায় প্রাথমিকে ২ লাখ ২৯ হাজার ৫’শ, মাধ্যমিকে ৩ লাখ ৮৫ হাজার ৪৫০, দাখিলে ১ লাখ ২৫ হাজার ৬’শ, এবতেদায়ী শাখায় ৮১ হাজার ৪’শ কপি।

সারিয়াকান্দি উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৬৭ হাজার ৮২০, মাধ্যমিকে ২লাখ ৫৭ হাজার ৮৫৪, দাখিলে ৪৩ হাজার ৪১৯, এবতেদায়ী শাখায় ৩০ হাজার ৫৬০ কপি।

সোনাতলা উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৫৮ হাজার ৫৭৪, মাধ্যমিকে ২ লাখ ৫৭ হাজার ৯৫, দাখিলে ৪০ হাজার ৩৫০, এবতেদায়ী শাখায় ২৭ হাজার ৭’শ কপি এবং

শাজাহানপুর উপজেলায় প্রাথমিকে ১ লাখ ৬৩ হাজার ৮’শ, মাধ্যমিকে ২ লাখ ৬০ হাজার ৪’শ, দাখিলে ৯১ হাজার ২১৬, এবতেদায়ী শাখায় ৫৯ হাজার ৮’শ কপি।

এ ছাড়াও জেলার সকল উপজেলায় এসএসসি(ভোকেশনাল) ১লাখ ৭৯০, দাখিল(ভোকেশনাল) ১ হাজার ৬৯০, ভোকেশনাল ট্রেড শাখায় ৩৩ হাজার ৪৭২, ইংলিশ মিডিয়ার শিক্ষার অনুকুলে ১৩ হাজার ২৯৫ কপি পাঠ্যপুস্তক বিতরণের জন্য প্রস্তত রাখা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা (চলতি দায়িত্ব) সোনালী সরকার বলেন, জেলায় চাহিদার বিপরীতে ২০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২০ কপি বিনামূল্যের নতুন পাঠ্যবই প্রস্তত রাখা হয়েছে। আগামী ১ জানুয়ারীতে জেলার সকল ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হবে। এজন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের কাছে পৌঁছে দেয়ার কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হজরত আলী বলেন, সরকারিভাবে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড(এনসিটিবি) প্রদেয় জেলার সকল উপজেলার চাহিদার ভিত্তিতে নতুন বই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা অফিসগুলোর কর্মকর্তার কাছে প্রেরণ করা হয়েছে। আগামী ১ জানুয়ারীতে মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করা হবে। তবে এবছর সকল উপজেলা শিক্ষা অফিসের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতেই নতুন বই বরাদ্দ দেয়া হয়েছে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।