🕓 সংবাদ শিরোনাম

রোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফআর এমন ভুল হবে না: নোবেলস্বেচ্ছায় কারাবরণের আবেদন নিয়ে থানায় অনুসন্ধানী সাংবাদিকেরাইসরায়েলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় ঢাবি শিক্ষক সমিতিযমুনা নদীতে ডুবে তিন কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু‘বাংলাদেশে সাংবাদিকতাকে তথ্য চুরি বলা হচ্ছে, এর চেয়ে দুঃখ আর নেই’

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

বছরের প্রথম দিনেই রক্তাক্ত কাশ্মীর: ২ ভারতীয় সেনা নিহত


❏ বুধবার, জানুয়ারী ১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ইংরেজি নতুন বছরের প্রথম দিনেই ব্যাপক সংঘর্ষের কবলে পড়েছে কাশ্মীর উপত্যকা। আজ বুধবার জম্মু ও কাশ্মীরের নৌসেরা সেক্টরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের গোলাগুলি হয়েছে। এতে দুই ভারতীয় সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।

ভারতীয় সেনা সূত্র জানিয়েছে, বুধবার ভোররাতে নৌসেরা সেক্টরে পাক-অধিকৃত কাশ্মীর থেকে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে জঙ্গিরা। নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন রাজৌরি জেলার নৌসেরা সেক্টরে খারি থারায়ত জঙ্গলে প্রবেশ করে সন্ত্রাসবাদীরা। তারপরই 'কর্ডন অ্যান্ড সার্চ' অপারেশন শুরু করে সেনা। তল্লাশি চলাকালীন জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে জেহাদিরা। জবাব দেন নিরাপত্তারক্ষীরাও।

সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, সংঘর্ষে নিহত হয়ছেন দুই জওয়ান। গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে সন্ত্রাসবাদীদের খোঁজে চলছে তল্লাশি।

জম্মুভিত্তিক ভারতীয় সেনাবাহিনীর গণসংযোগ কর্মকর্তা লে. কর্নেল দেবেন্দর আনন্দ এক বিবৃতিতে জানায়, খারি থ্রায়াত বনাঞ্চল ব্যবহার করে পাকিস্তান থেকে কিছু ‘সেনা’ অনুপ্রবেশ করছে এমনটা টের পায় সেনারা। এ সময় ‘ঘেরাও-তল্লাশি’ অভিযান শুরু করলে জম্মু-কাশ্মীরের নওশেরা সেক্টরে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

উল্লেখ্য, আগস্টের শুরুতে কাশ্মীরের রাজ্য ও বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা বাতিল করে ভারতের বিজেপি সরকার। কারফিউ জারির পাশাপাশি মোবাইল ও ইন্টারনেট বন্ধ থাকায় কাশ্মীরের সঙ্গে পুরো বিশ্বের যোগাযোগ কার্যত বিচ্ছিন্ন।

কাশ্মীরে সাবেক তিন মুখ্যমন্ত্রীসহ ২০০ জনের মতো স্থানীয় নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত আটকের সংখ্যা অন্তত সাড়ে পাঁচ হাজার। অনেককে রাজ্যের বাইরের কারাগারে রাখা হয়েছে।