🕓 সংবাদ শিরোনাম

করোনায় বেসামাল ভারত, একদিনে আরও ৪০৯২ জনের মৃত্যুচীনা রকেটের সেই ধ্বংসাবশেষ আছড়ে পড়লো মালদ্বীপের কাছেঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে চলছে দূরপাল্লার বাসশরীয়তপু‌রে কৃষিঋণ পেতে হয়রানি, ব্যাংকে দালাল চ‌ক্রের দৌরাত্ম্য চর‌মে!স্কটল্যান্ডের সংস‌দে প্রথম বাংলা‌দেশি এমপি নবীগঞ্জের ফয়ছল চৌধুরীসিলেটে চাহিদামতো ইফতারি না দেয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যা!করোনাকালে কিন্ডারগার্টেন ও নন-এমপিও শিক্ষকদের করুণ দশা!ওয়ালটন স্মার্টফোনে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ‘ঈদ সালামি’চাচীর পরকীয়ার কথা জেনে যাওয়ায় ভাতিজাকে নৃসংশ ভাবে খুনকেরাণীগঞ্জে দুই কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার-৪

  • আজ রবিবার,২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ৯ মে, ২০২১, সকাল ১১:৩১

‘রমজানের আগে দুই লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হবে’- বাণিজ্যমন্ত্রী

❏ শুক্রবার, জানুয়ারী ৩, ২০২০ জাতীয়
tipu

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ আগামী রমজান মাসের প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতে দুই লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আগামী রমজান উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুত, সরবরাহ, আমদানি,মূল্য পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে ব্যবসায়ী,সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, টিসিবি,সিটি গ্রুপ,মেঘনা গ্রুপ এবং এস আলম গ্রুপ প্রত্যেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন করে পেঁয়াজ আমদানি করবে। রমজান শুরুর আগেই এগুলো আমদানি করা হবে। এর পাশাপাশি ভৌজ্যতেল,ছোলা,আদা,রসুন,খেজুরসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের চাহিদা,উৎপাদন ও আমদানি পর্যালোচনা করে প্রয়োজনীয় মজুত করা হবে।

টিপু মুনশি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য বলেন,‘আপনাদের দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে। ন্যায় সঙ্গত মুনাফা করে ব্যবসা করেন। সরকার ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দিবে।’

তিনি বলেন,বিগত দিনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আগামী দিনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। রমজানে যেন কোন পণ্যের ঘাটতি না হয়, সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন,সেবার মনোভাব নিয়ে ব্যবসা করলে ব্যবসায়ী ও ভোক্তা উভয়েই উপকৃত হবেন।

সভায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের স্বাভাবিক সরবরাহ ও ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে। দেশে যাতে কোন পণ্যের সংকট না হয় বা অযৌক্তির মূল্য বৃদ্ধি না হয়, সেজন্য সরকার সজাগ আছে বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, এবারে পেঁয়াজ নিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে সমস্যা তৈরি হয়েছে। সরকার জরুরি পদক্ষেপ নিয়ে দেশের বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে মিশর ও তুরষ্ক থেকে পেঁয়াজ আমদানি করিয়েছে। দেশেই যাতে প্রয়োজনীয় পেঁয়াজ উৎপাদন করা যায় সেজন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

সভায় অন্যন্যের মধ্যে বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন,বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপার্সন মো. মফিজুল ইসলাম, ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান তপন কান্তি ঘোষ, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. হাসান জাহাঙ্গীর, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, বাংলাদেশ পাইকারী ভৌজ্য তেল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. গোলাম মাওলাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের আমদানিকারক, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক, কৃষি মন্ত্রনালয়,এফবিসিসিআই ও অন্যান্য ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।