মধ্যরাতে রাজধানীতে বৃষ্টি

২:৩২ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, জানুয়ারী ৩, ২০২০ স্পট লাইট
bris

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ রাজধানীতে বৃহস্পতিবার (০২ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে বৃষ্টি হয়েছে। রাত ১টা হতে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়।

বছরের শুরুতে যে বৃষ্টি হবে, তা আগেই জানিয়ে রেখেছিল আবহাওয়া দপ্তর। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীসহ বেশ কয়েকটি জেলায় বৃষ্টি ঝরেছে। আজ শুক্রবার ও আগামীকালও দেশের কয়েকটি জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুউদ্দিন আহমেদ জানিয়েছিলেন যে ৩, ৪ ও ৫ জানুয়ারি সারাদেশে বৃষ্টি শুরু হবে এবং তাপমাত্রা কমতে থাকবে। ৬ জানুয়ারি পর থেকে একটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আসবে। ১০ জানুয়ারির পর মাসের মাঝামাঝি একটি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ শুরু হবে। ছয় থেকে আট ডিগ্রি সেলসিয়াস। মাসের শেষদিকে আসবে আরেকটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ। তখন তাপমাত্রা ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও নিচে চলে আসতে পারে।

আবহাওয়া দপ্তরের তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, পশ্চিমা লঘুচাপের প্রভাবে গতকাল দেশের কয়েকটি অঞ্চলে বৃষ্টি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে কক্সবাজারে ১১ মিলিমিটার। এ ছাড়া সিলেট, দিনাজপুর, নওগাঁ, রংপুরসহ অন্তত ১০ জেলায় বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের সব বিভাগে আজ শুক্রবারও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া দপ্তরের তথ্য বলছে, আরো দুই দিন বৃষ্টি ঝরলেও তখন তাপমাত্রা স্বাভাবিকই থাকবে। রবিবারের পর থেকে দেশে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে। তখন তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ঢাকায় ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়ার দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এই মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ঘন কুয়াশা ও মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে। দুটি শৈত্যপ্রবাহ তীব্র হবে এই মাসেই। ওই সময় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে।