‘সোলেইমানি হত্যা আমেরিকার আহাম্মকি’- ইরান

⏱ | শুক্রবার, জানুয়ারী ৩, ২০২০ 📁 আন্তর্জাতিক
sola

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মার্কিন বাহিনীর হামলায় ইরানি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর এলিট কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেমাইনি নিহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ জানিয়েছে ইরান। এ ঘটনাকে আমেরিকার জন্য ‘মারাত্মক বিপজ্জনক’ বলে অভিহিত করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।

শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে এক বার্তায় জাভেদ জারিফ এ কথা বলেন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা যায়।

টুইটা বার্তায় ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জেনারেল সোলেমানিকে হত্যা আমেরিকার আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ। সোলেইমানির বাহিনীই এ অঞ্চলে সবেচেয়ে কার্যকরভাবে আইএস, আল কায়েদা, আল নুসরার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিল।
‘তার ওপর আমেরিকার এ হামলা ভয়ানক বিপজ্জনক ও আহাম্মকি। এ রকম ভয়ানক ‘অ্যাডভেঞ্চারের’ সব ধরনের পরিণতির দায় নিতে হবে আমেরিকাকে।’

ইরানের আধা-সরকারি সংবাদ সংস্থা ‘ফার্স নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, এ ঘটনায় এরই মাঝে ইরানের উচ্চ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে। সোলেমানি হত্যায় পরবর্তী করণীয় নিয়ে এ বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

জরুরি নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র কেভান খোসরাভি বলেন আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বাগদাদে মার্কিন হামলায় জেনারেল সোলেমানি হত্যার ঘটনায় নিরাপত্তা পরিষদের সর্ব্বোচ্চ পর্যায়ের বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোরে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে দু’টি গাড়িতে হেলিকপ্টার থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় মার্কিন সেনারা। এতে ইরানের কুদস ব্রিগেডের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও ইরাকের হাশদ আশ-শাবির বাহিনীর সেকেন্ড-ইন-কমান্ড আবু মাহদি আল-মুহান্দিস নিহত হন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে পেন্টাগন নিশ্চিত করেছে।