🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইসরাইলকে সমর্থন দিয়েছে বিশ্বের ২৫টির মতো দেশ!বাংলাদেশিদের ভালোবাসা দেখে বিস্মিত ফিলিস্তিন রাষ্ট্রদূতঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যাত্রী পরিবহনের প্রতিযোগিতায় ট্রাক ও পিকআপখেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরব

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

নারী সাংবাদিককে আপত্তিকর প্রস্তাব ট্রাম্পের!

nari
❏ রবিবার, জানুয়ারী ৫, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ফক্স নিউজের সাবেক এক নারী সাংবাদিককে আপত্তিকর প্রস্তাব দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনটি জানিয়েছেন সেই সাংবাদিক কোর্টনি ফ্রিয়েল। প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে ওই নারী সাংবাদিককে তিনি তার ট্রাম্প টাওয়ারে যাওয়ার প্রস্তাব দেন, যাতে তারা অন্তরঙ্গ সম্পর্কে জড়াতে পারেন।

ঘটনাটি নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দ্যা গার্ডিয়ান। প্রতিবেদনে বলা হয়, কোর্টনি ফ্রিয়েল ‘টুনাইট অ্যাট টেন: কিকিং বুজ অ্যান্ড ব্রেকিং নিউজ’ নামে একটি বই লিখেছেন। বইয়ে তিনি ট্রাম্পের অপ্রত্যাশিত প্রস্তাব নিয়ে মুখ খুলেন।

ঐ নারী সাংবাদিক বলেন, ‘ট্রাম্প তাকে তার অফিসে ডেকেছিলেন। আর বলেছিলেন, আমরা দুজন চুমু খেতে পারি।’

শুধু তাই নয়, ট্রাম্প ঐ নারী সাংবাদিককে ফক্স নিউজের সবচেয়ে আবেদনময়ী রিপোর্টার বলেছিলেন। বেশ কয়েকবার ঐ নারীর সঙ্গে ফক্স নিউজের অফিসে ফোন করে কথা বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

কোর্টনি ফ্রিয়েল তার বইয়ে লিখেন, ‘ট্রাম্প ফোন দিলে বলতাম, আমরা দুজন বিবাহিত। এই বলে ফোন কেটে দিতাম।’

কোর্টনি ফ্রিয়েল ট্রাম্পের প্রিয় টিভি শো ‘ফক্স অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’-এর উপস্থাপকের দায়িত্ব পালন করতেন। ট্রাম্প আয়োজিত মিস ওয়ার্ল্ডের বিচারক হতে চেয়েছিলেন তিনি।

এটি শোনার পর ট্রাম্প তাকে জানান, কোর্টনির বিচারক হওয়া সম্ভব নয়, কারণ তিনি অন্য টিভি নেটওয়ার্কে কাজ করেন।

উল্লেখ্য কোর্টনি ফ্রিয়েল এখন লস অ্যাঞ্জেলেসের কেটিএলএতে কর্মরত আছেন। এবার এই নারী সেই সব নারীদের তালিকায় যুক্ত হলেন যারা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন।