• আজ বৃহস্পতিবার। ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সকাল ৬:৩৩

ভুয়া ভিডিও পোস্ট করায় ইমরান খানের ওপর চটেছেন ওয়াইসি

⏱ | রবিবার, জানুয়ারী ৫, ২০২০ 📁 আন্তর্জাতিক
imran

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতীয় পুলিশ মুসলমানদের ওপরে অত্যাচার, আক্রমণ চালাচ্ছে। এই অভিযোগ একটি ভিডিও টুইট করেছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মূলত ভিডিওটি ছিল ২০১৩ সালের মে মাসে ঢাকার শাপলা চত্বরে হেফাজতে ইসলামীর নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযানের।

এই ঘটনায় ইমরান খানের সমালোচনা করেছেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের (এমআইএম) সভাপতি আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।

পাক প্রধানমন্ত্রীর ভুয়া ভিডিও পোস্টের পর শনিবার ওয়াইসি বলেন, ‘ইমরান খান যেন ভারতীয় মুসলিমদের চিন্তা ছেড়ে নিজের দেশের কথা ভাবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের একটি ভিডিও পোস্ট করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী সেটিকে ভারতের বলে দাবি করেছেন। মিস্টার খান, নিজের দেশ নিয়ে চিন্তা করুন। আমরা জিন্নার ভুল তত্ত্ব খারিজ করেছি। আমরা গর্বিত ভারতীয় মুসলিম এবং চিরকাল তেমনটাই থাকব।’

উল্লেখ্য বিতর্কিত ও ধর্মভিত্তিক নাগরিকত্ব আইনকে ঘিরে ভারতীয় পুলিশের অত্যাচার প্রমাণ করতে শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের একটি ভিডিও টুইট করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ইমরানের টুইট করা ওই ভিডিওটি আসলে ২০১৩ সালের ৫ মে’র। ওইদিন হেফাজতে ইসলামের ঢাকা অবরোধ এবং শাপলা চত্বরে অবস্থান নেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছিল।

নিজের টুইটার থেকে এই ভিডিওটি পোস্ট করে ইমরান দাবি করেন, যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে এ ভাবেই মুসলিমদের ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। এই ঘটনাটি মুসলিমদের দেশছাড়া করতে নরেন্দ্র মোদি সরকারের ভারতীয় পুলিশের হামলার অঙ্গ।

টুইটারে ওই ভিডিওটি শেয়ার করামাত্র তা হোয়াট্‌সঅ্যাপ এবং ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে কিছুক্ষণ পরই ধরা পড়ে ভিডিওটি বাংলাদেশের র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব) সদস্যদের।

এরপর প্রবল ট্রোলের শিকার হয়ে পোস্টের দুঘণ্টার মধ্যেই ওই টুইট সরিয়ে দেয়া হয় পাক প্রধানমন্ত্রীর টুইটার থেকে।