মানুষ দেখলেই জড়িয়ে ধরছে ভয়ার্ত পশুগুলো

❏ রবিবার, জানুয়ারী ৫, ২০২০ ফিচার
posu

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দাবানলের আগুনে দাউদাউ করে জ্বলছে অস্ট্রেলিয়ার বিস্তীর্ণ বনাঞ্চল। সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই বিধ্বংসী দাবানলের জেরে পুড়ে গেছে প্রায় কয়েক লক্ষ একর জমি। ভস্মীভূত হয়েছে প্রায় দু’শরও বেশি বাড়ি। দাবানলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩০ জনে দাঁড়িয়েছে।

ইতিমধ্যেই দেশটির ৬টি রাজ্যের মধ্যে ৪টিই দাবানলের কবলে পড়েছে। দাবানল এখন বেড়েই চলেছে। যাতে সবচেয়ে বিপদে আছে বনের পশু-পাখিরা। ভয়াবহ দাবানলে অস্ট্রেলিয়ায় এখন পর্যন্ত প্রাণ গেছে স্তন্যপায়ী প্রাণী, পাখি ও সরীসৃপ প্রজাতির অন্তত ৫০ কোটি প্রাণীর। সম্প্রতি এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস্তুবিদরা।

চারদিক থেকে আগুন তাদেরকে এমনভাবে ঘিরে ধরছে যে, পালানোর সুযোগটাও পাচ্ছে না! অসংখ্য প্রাণী কোনওমতে পালিয়ে জনবসতিতে চলে এসেছে। মানুষ দেখলেই এখন জড়িয়ে ধরছে সেই ভয়ার্ত পশুগুলো! বোবা মুখে ভাষা ফোটে না, কিন্তু কাতর আর্তিতে চাইছে সাহায্য।

অস্ট্রেলিয়ার অধিবাসীরা দূর্গত এসব প্রাণীদের আশ্রয় দিচ্ছে। তাদের চিকিৎসা এবং খাবারের ব্যবস্থাও করে দিচ্ছে মানুষ।

এদিকে, দগ্ধ-অর্ধদগ্ধ প্রাণীগুলোর ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্ব মিডিয়ায়। যে-ই দেখছে, তার চোখ বেয়ে নেমে আসছে অশ্রুর ধারা।

ভয়াবহ এই দাবানলে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে ৩৬ লাখ হেক্টর জমি পুড়ে গেছে। যা ইউরোপের দেশ বেলজিয়ামের থেকেও বড়। কুইন্সল্যান্ডে পুড়ে গেছে প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার হেক্টর জমি।

এছাড়া ভিক্টোরিয়া অঙ্গরাজ্যে ৮ লাখ ২০ হাজার হেক্টর বনাঞ্চল পুড়ে গেছে। ভয়াবহ এই দাবানল মোকাবেলায় সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। তবুও থামছে না আগুনের প্রকোপ।