‘ফিলিস্তিনিদের সাহায্য করায় সোলাইমানিকে হত্যা’- ইসমাইল হানিয়া

❏ সোমবার, জানুয়ারী ৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক
sul

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ জেনারেল সোলাইমানি আজীবন ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়ে গেছেন, সেজন্যই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের রাজনৈতিক প্রধান ইসমাইল হানিয়া। এ সময় তিনি সোলাইমানিকে বায়তুল মুকাদ্দাসের শহীদ আখ্যায়িত করেন।

সোমবার তেহরানে জেনারেল সোলাইমানি এবং কমান্ডার আবু মাহদি আল মুহান্দিসসহ নিহতদের জানাজা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জেনারেল সোলাইমানির জানাজায় অংশ নিতে ইসমাইল হানিয়া বর্তমানে ইরানে অবস্থান করছেন।

জানাজাপূর্ব বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা এখানে এসেছি, অন্তরের ভালবাসা থেকে শহীদ সোলাইমানিকে স্মরণ করতে যার সাহায্য ও সহযোগিতা ফিলিস্তিন রক্ষার সংগ্রামকে আরো গতি দিয়েছে।

আমরা কখনো পেছনে ফিরে যাবোনা, এই শাহাদাত কুদস এবং ফিলিস্তিন স্বাধীন করতে আল্লাহর ইচ্ছায় আমরা এগিয়ে যাবো।

হানিয়া আরও বলেন, শহীদ সোলাইমানি তার পুরো জীবন ফিলিস্তিনকে রক্ষায় সময় দিয়েছেন। আমি ঘোষণা দিতে চাই শহীদ সোলাইমানি ‘কুদসের একজন শহীদ, কুদসের একজন শহীদ’।

গাজায় এবং লেবাননের সংগ্রামে যে বিজয় তিনি নিয়ে এসেছেন আল্লাহর সহায়তায় সে বিজয় অব্যাহত থাকবে।

হামাস নেতা আরও বলেন, ইসলামি প্রতিরোধের মাধ্যমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেয়া হবে।

এদিকে ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যাকাণ্ডে শোক প্রকাশ করেছেন অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার হাজার হাজার বাসিন্দা।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে ইরাকের বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন বাহিনীর ড্রোন হামলায় মেজর জেনারেল কাসেম সোলেমানি ও ইরাকি শিয়া সশস্ত্র সংগঠন হাশাদ আশ-শাবির উপ-অধিনায়ক আবু মাহদি আল-মুহানদিসসহ ছয়জন নিহত হন।

মার্কিন এ হামলার পরিপ্রেক্ষিতে অঞ্চলটিতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ওই ঘটনায় আয়াতোল্লাহ আলি খামেনি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আমির হাতামি, ইরানি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর সাবেক কমান্ডার মোহসেন রেজায়িসহ ইরানের উর্ধ্বতন পর্যায়ের বিভিন্ন নেতা সোলেমানি হত্যার ঘটনায় আমেরিকাকে চড়া মূল্য দিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন।