ভারতে পাচারকালে এক কোটি টাকার স্বর্ণসহ বাংলাদেশি আটক


❏ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৭, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের বুড়িমারী ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে পাচারের সময় এক কোটি টাকা মূল্যের প্রায় ২ কেজি ওজনের স্বর্ণের বারসহ মনির হোসেন (৩৮) নামে এক পাসপোর্ট যাত্রীকে আটক করেছে চ্যাংড়াবান্ধা কাস্টমস।

সোমবার (৬ জানুয়ারী) বিকেল সাড়ে ৫টায় বুড়িমারী ইমিগ্রেশন ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) খন্দকার মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এছাড়াও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে প্রকাশিত উত্তরবঙ্গ সংবাদ থেকে এ তথ্য জানা গেছে। আটককৃত বাংলাদেশি পাবনা জেলার ফরিদপুর থানার গোপালনগর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে।

তিনি আরো জানান, সোমবার সকালে বুড়িমারী স্থলবন্দরে মনির হোসেন চেকপোস্টে আসে। দুপুরে বুড়িমারী ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট হয়ে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা শুল্ক স্টেশনে প্রবেশ করে। বাংলাদেশি মনির হোসেনকে ভারতীয় শুল্ক কর্মকর্তারা সন্দেহ করে। পরে মনিরের শরীর তল্লাশি করে প্রায় দুই কেজি স্বর্ণের বার পাওয়া যায়। ওই সময় তাকে আটক করে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে এভাবে কোটি টাকার স্বর্ণ ভারতে পাচার হওয়ায় এলাকায় ব্যাপক আলোচনার তৈরি হয়েছে। কাস্টমস, বিজিবি ও ইমিগ্রেশন পুলিশের চোখকে ফাঁকি দিয়ে কিভাবে ভারতে স্বর্ণের বার পাচার হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বিষয়টি জানতে চাইলে বুড়িমারী ইমিগ্রেশন উপ পরিদর্শক (এস,আই) খন্দকার মাহমুদ বলেন, বিষয়টি আমিও শুনেছি। তবে আমি তাদের (চ্যাংড়াবান্ধা ইমিগ্রেশন) নিকট নাম পাসপোট নম্বরসহ বিস্তারিত জানতে চেয়েছি। তবে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে বুড়িমারী স্থলবন্দরের সহকারী কমিশনার সোমেন কুমার চাকমার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।