মহানবীকে নিয়ে কটুক্তি, শরিয়ত বয়াতীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়ে মুসুল্লিদের সমাবেশ


❏ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৭, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটুক্তি করার অভিযোগ উঠেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার আগদল্যা গ্রামের শরিয়ত বয়াতী নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (০৭ জানুয়ারী) সকালে উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের শুভুল্যা এলাকায় ড. খন্দকার আয়েশা রাজিয়া স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে প্রায় দুই হাজার ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা শরিয়ত বয়াতীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে প্রতিবাদ ও সমাবেশ করেন। সমাবেশ চলাকালীন সময়ে মোতায়েন ছিলো প্রায় অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, টাঙ্গাইল জেলা ওলামা পরিষদের সভাপতি হযরত মাওলানা আব্দুল আজিজ। অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন টাঙ্গাইল জেলা কেন্দ্রীয় মসজিদের ঈমাম মাওলানা শামছুজ্জামান, মুফতি আব্দুর রহমান, জামুর্কী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী এজাজ খান চৌধুরী রুবেল প্রমুখ।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আহাদুজ্জামান মিয়া, সহকারি পুলিশ সুপার (মির্জাপুর সার্কেল) দীপঙ্কর ঘোষ, মির্জাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান প্রমুখ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শরীয়ত বয়াতী পলাতক রয়েছে। আমরা সর্বাত্বক চেষ্টা করছি তাকে ধরতে। আশা করছি অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা তাকে আটক করতে পারবো।

সমাবেশে বক্তারা শরীয়ত বয়াতীকে দ্রুত আইনে আওতায় না আনলে ভবিষ্যতে আরও বড় আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকি দিয়ে প্রয়োজনে নিজেরাই শরীয়ত সরকারের বিচার করবেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের আগ ধল্যা গ্রামের পবন মিয়ার ছেলে শরিয়ত বয়াতী গত ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জে পালা গানের একটি অনুষ্ঠানে ইসলাম, মহানবী, মসজিদের ঈমাম ও ইসলামের নানা বিষয়ে আপত্তিকর বক্তব্য রাখেন বলে অভিযোগ উঠে। সেই বক্তব্য ইউটিউবের মাধ্যমে খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে গেলে মির্জাপুরের ধর্মপ্রাণ মুসুল্লি তার বিচার দাবি করেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের সমাবেশ।