🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

ফসলি জমি রক্ষার্থে কৃষকদের মানববন্ধন

Mirzapur Pic
❏ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৯, ২০২০ ঢাকা

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ তিন ফসলি জমি রক্ষার্থে সরিষাক্ষেতে মানববন্ধন করেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার পাকুল্যা চরপাড়া গ্রামের এলাকাবাসী। বুধবার (৮ জানুয়ারি) বিকেলে পাকুল্যা চরপাড়ায় সরিষা ক্ষেতে শত শত কৃষক মাটি ব্যবসায়ী ও ভাটা মালিকদের হাত থেকে ফসলি জমি বাঁচাতে এলাকাবাসী মানবন্ধন করে।

সরজমিনে দেখা যায়, পাকুল্যা চরপাড়ায় ৩ ফসলি আবাদী জমির পশ্চিমাংশের প্রায় ৫ একর জমিতে কয়েক বছর যাবত মাটি ব্যবসায়ীরা ভেকু বসিয়ে ৩০ ফুট গভীর করে মাটি কেটে আবাদ অনুপযোগী করে ফেলেছে। ফসলি জমি হারিয়ে শত শত কৃষক মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তাদের ওই জমিগুলোতে চৈত্র মাস অবধি পানি থাকার কারণে কোন প্রকার চাষাবাদ করা সম্ভব হয় না। সম্প্রতি মাটি ব্যবসায়ীদের নজর পড়েছে পূর্বাংশের প্রায় ১০ একর জমিতে। তারা ভেকু বসিয়ে মাটি কাটা শুরু করেছে। স্থানীয় কৃষকরা ওই জমি রক্ষার্থে বিভিন্ন দপ্তরে প্রতিকার চেয়ে কোন বিচার পাচ্ছে না। উপরন্তু ব্রিক ফিল্ড মালিক ও মাটি ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী হওয়ার কারণে বিভিন্ন মামলায় হয়রানি করার হুমকী দিচ্ছে।

স্থানীয় কৃষক আবু সাইদ মিয়া (৭০), এছাক মিয়া (৭০), ছানোয়ার হোসেন (৬৫), চাঁন খা (৬৫), প্রতিবন্ধী কাদের মিয়া (৬০), গিয়াস উদ্দিন (৫০), রবি (৬০), বিলাত আলী (৭৫), মতি (৭০), শওকত (৫৫), কদ্দুছ (৫৫), নুরুল ইসলাম (৫২) সহ অনেকেই জানান উচ্চ মূল্যের লোভ দেখিয়ে প্রথমে দু-একজন কৃষকের নিকট থেকে জমির মাটি ক্রয় করে অনেক গভীর পর্যন্ত গর্ত করে মাটি খনন করে। এর ফলে পাশর্^বর্তী জমিগুলো ধ্বসে আবাদের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। উপায়ন্তর না পেয়ে পাশর্^বর্তী জমির মালিক মাটি বিক্রী করতে বাধ্য হয়। এর ফলে এ গ্রামের শতাধিক কৃষক মাটি ব্যবসায়ীদের কবল থেকে রক্ষা পেতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করে সরিষাক্ষেতে মানবন্ধন করে।

মাটি ব্যবসায়ী মুক্তার আলী খান বলেন, আমরা উপযুক্ত মূল্য দিয়ে জমির মালিকদের নিকট থেকে মাটি ক্রয় করি। এতে দোষের কিছু আছে বলে আমি মনে করি না।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার মো. মইনুল হক জানান, অবৈধভাবে মাটি কাটার ব্যাপারে আমরা প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা করে আসছি। ওই এলাকায় অবৈধভাবে মাটি কাটলে খোঁজ খবর নিয়ে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।