মাদারীপুরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২০

❏ শুক্রবার, জানুয়ারী ১০, ২০২০ ঢাকা

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর :: মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার উত্তর হোসেনপুর গ্রামে শুক্রবার সকালে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুই পক্ষের মধ্যে এক রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে বাবুল মুন্সী (৪৫) নামের একজন নিহত ও উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। নিহত বাবুল মুন্সী উক্ত গ্রামের মজিদ মুন্সীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার উত্তর হোসেনপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দীর্ঘদিন যাবত এলাকার দুটি পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার সকালে দেলোয়ার মেম্বারের পক্ষের কয়েক যুবক মিলে এলাকার জঙ্গল পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা করার জন্য দা, কাচি ও ছ্যান নিয়ে বের হয়।

কিন্ত্র এ ঘটনা দেখে প্রতিপক্ষ জুলফিকার খালাশীর লোকজন তাদের উপর হামলা করতে এসেছে ভেবে ওই যুবকদের পরিছন্নতা কাজে বাঁধা দিয়ে তাদের উপর হামলা ও মারধর করে । আরো সংঘর্ষ হতে পারে আশংকায় পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতেই সাবেক মেম্বরসহ তিনজনকে আটক করলেও ক্ষিপ্ত দুই পক্ষ থেমে থাকেনি।

ওই ঘটনার জের ধরে শুক্রবার সকালে বিবাদমান ওই দুটি পক্ষ জুলফিকার খালাশী (৫৫) ও দেলোয়ার মেম্বর পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয় । এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২০জন আহত হয় । সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

মারাত্নক আহত সিরাজ খালাশী (৪০), জুলফিকার খালাশী (৫৫), কহিনুর খালাশী (৪৫), সজিব মুন্সী (৪৫), দেলোয়ার মুন্সী (৩০), বাবুল মুন্সী (৪৫), রিপন মুন্সীকে (৪৫), হাসান শেখ (৩৫) রাজৈর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতদের মধ্যে অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসান শেখ, বাবুল মুন্সী ও কহিনুর খালাশীকে গুরুতর অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর বাবুল মুন্সী (৪৫) দুপুর ২টার সময় মারা যায়। বাবুল মুন্সীর মৃত্যুর ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর প্রতিপক্ষের অর্ধশতাতিক ঘরবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট হয়েছে বলে স্থানীয়া জানায়।

রাজৈর থানার ওসি খোন্দকার শওকত জাহান বলেন, বাবুল মুন্সী নামে একজন মারা গেছে। এব্যাপারে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে।