• আজ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মুক্তিপণ না পেয়ে শিশুর বস্তাবন্দি লাশ পাঠালো অপহরণকারীরা

১১:০৮ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, জানুয়ারি ১১, ২০২০ দেশের খবর, সিলেট

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি- মুক্তিপণ না দেওয়ায় সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলায় তোফাজ্জল হোসেন নামে সাত বছরের এক শিশুকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার সকালে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বাঁশতলা নিখোঁজ শিশুর বাড়ির পাশের বাড়ি থেকে লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তাদের নাম জানা যায়নি।

তোফাজ্জল হোসেন উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বাশঁতলা গ্রামের জুবেল হোসেনের ছেলে এবং বাঁশতলা হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্র।

গত ০৮ জানুয়ারি বুধবার বিকাল ৫টার সময় গত দুইদিন ধরে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ এ বিষয়ে নিখোঁজ তোফাজ্জলের দাদা জয়নাল আবেদীন ০৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে তাহিরপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেন। জিডি নং ২৬০।

তাহিরপুর থানার ওসি মোঃ আতিকুর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শিশুর লাশটি ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো প্রক্রিয়াধীন।

স্থানীয় ও শিশুটির পারিবারিক সূত্রে আরো জানা যায়, নিখোঁজের পর অজ্ঞাত অপহরণকারীরা ঐ শিশুটিকে ফেরত নিতে ৮০ হাজার টাকা দাবি করে একটি চিঠি পাঠায়, সাথে শিশুটির কাপড় ও জুতা পাঠায়। এরপরেই শিশুটির পরিবার থেকে তাহিরপুর থানার একটি নিখোঁজ বিষয়ে জিডি করেন। এ নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে আজ শিশুটির বস্তা বন্ধি লাশ পাওয়া যায়।

থানার জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ০৮ জানুয়ারি বুধবার বিকাল ৫ টার সময় নিখোঁজ তোফাজ্জল তার দাদা জুবেল হোসেনের বাড়ি থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের পর থেকে প্রতিবেশী, তাদের আত্মীয় স্বজন ও তোফাজ্জলের বন্ধুদের বাড়িতেও তার কোন সন্ধান মেলেনি।