সংবাদ শিরোনাম
ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত ৬৫০, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৪২ জন | ‘ভেটেরিনারি শিক্ষায় শতভাগ কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা সম্ভব’ | আশুলিয়ায় ছেলের আঘাতে বাবার মৃত্যু, আটক ২ | ভারতে মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদে টঙ্গীতে বিক্ষোভ মিছিল | ‘অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক মোদিকে আসতে দেয়া হবে না’ | ‘খালেদা জিয়ার কিছু হলে দায় সরকারকেই নিতে হবে’- মওদুদ | ‘পাপিয়ার সঙ্গে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে’- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | তুরস্কের পাল্টা হামলায় ১৬ সিরীয় সেনা নিহত | দিল্লির বিক্ষোভ-সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪২ | ‘আওয়ামী সিন্ডিকেটের জন্য সরকার বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করেছে’- রিজভী |
  • আজ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে খরচ ৬০ কোটি টাকা

৯:০৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, জানুয়ারি ২০, ২০২০ ঢাকা
daha

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার পরিচালন, আইন-শৃঙ্খলা ও প্রশিক্ষণ মিলিয়ে প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ের ফর্দ সাজিয়েছে নির্বাচন কমিশন, যা পাঁচ বছর আগের সিটি ভোটের তিনগুণ।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, দুই সিটির নির্বাচন পরিচালনায় প্রায় ১৯ কোটি টাকা, আইন-শৃঙ্খলা খাতে ‘পরিস্থিতি বিবেচনায়’ ২২ থেকে ২৫ কোটি টাকা এবং প্রশিক্ষণ খাতে অন্তত ১৬ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ রয়েছে। ভোট শেষে সব ব্যয় সমন্বয় করে এবার খরচ দাঁড়াতে পারে ৬০ কোটি টাকার মত।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন ভাগ হওয়ার পর ২০১৫ সালে প্রথম নির্বাচনে উত্তর ও দক্ষিণে পরিচালন ব্যয় ছিল ৯ কোটি ১২ লাখ টাকা। আর আইন-শৃঙ্খলাসহ সব মিলিয়ে ব্যয় দাঁড়িয়েছিল ২০ কোটি টাকা।

নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা জানান, এবারই প্রথম পুরো ঢাকায় ইভিএমে ভোট হচ্ছে। সেজন্য প্রায় ৩৫ হাজার ইভিএম তৈরি রাখা, এ নিয়ে প্রশিক্ষণ, প্রচার ও উপকরণ সংগ্রহে ব্যয় হচ্ছে বেশ।

এবার ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের সম্মানী ভাতা গত নির্বাচনের চেয়ে দ্বিগুণ রয়েছে। অন্যান্য খাতেও খরচ বিভিন্ন মাত্রায় বেড়েছে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, নির্বাচনী এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তা পরিকল্পনা, প্রতিকেন্দ্রের নিরাপত্তায় কতজন করে নিয়োজিত থাকবেন; সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার, আইন-শৃঙ্খলা সমন্বয়সহ সার্বিক বিষয়ে ওই সভায় নির্দেশনা দেবে কমিশন।

উল্লেখ্য পূজার কারণে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ পুননির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনের তারিখ ৩০শে জানুয়ারির বদলে পহেলা ফেব্রুয়ারি ২০২০ নির্ধারণ করা হয়েছে। অর্ধ কোটির বেশি ভোটারের ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএমে।

Loading...