‘রাষ্ট্রীয়ভাবে পলিথিন ও প্লাস্টিকের ব্যবহার নিষিদ্ধ করা উচিত ‘- রাষ্ট্রপতি

◷ ৭:৪০ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
hamid

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পলিথিন ও প্লাস্টিকের বোতল রাষ্ট্রিয়ভাবে ব্যবহার নিষিদ্ধ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বুধবার বিকেলে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় সমাবর্তনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আশির দশকে আমরা বাজারে যাওয়ার সময় সাথে ঝুড়ি কিংবা চটের ব্যাগ নিয়ে যেতাম। এখন সবাই খালি হাতে বাজারে যায় এবং পলিথিনে করে বাজার করে নিয়ে আসে। আমরা সড়িষার তেলের জন্য একটি এবং কেরোশিন তেলের জন্য একটি করে শিশি (বোতল) নিয়ে যেতাম। এখন আধুনিকতার নামে খালি হাতে গিয়ে পলিথিনে বাজার করে নিয়ে আসছি। এতে করে দেশটাকে ধ্বংস করা হচ্ছে। এর পরিণাম ভয়াবহ হবে।

রাষ্ট্রপতি শিক্ষার্থীদের এগুলো পরিহারের পাশপাশি পলিথিন ও প্লাস্টিক বোতলের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান। এ ছাড়াও ফাস্ট ফুড ও বিভিন্ন সফট ড্রিংস এর ক্ষতিকর দিক তুলে ধরে এগুলো বর্জন করারও আহবান জানান তিনি।
দ্বিতীয় এ সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সভাপতিত্ব বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তর‌্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এ কে আজাদ চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. হারুনর রশীদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মাদ আলীমসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী, জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) ২য় সমাবর্তন বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত এ সমাবর্তনকে ঘিরে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলের সর্বোচ্চ এ বিদ্যাপীঠের ক্যাম্পাস, প্রশাসনিক ভবন, একাডেমিক ভবন, আবাসিক হলসহ এর আশপাশের এলাকা। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রায় চার হাজার আসনের প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে।

এবারের সমাবর্তনে প্রায় ৩ হাজার গ্রাজুয়েট অংশ নিচ্ছেন। যার মধ্যে স্নাতক এক হাজার ৯’শ ৬৮ জন, স্নাতকোত্তর ৯’শ ৫১জন ও পিএইচডি ৯ জন অংশগ্রহণ করবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যানিমাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিভিএম থেকে ২০০৩-০৪ শিক্ষাবর্ষ হতে ২০১৩-২০১৪ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত স্নাতক ও অন্যান্য সকল অনুষদ থেকে ২০০৫-০৬ শিক্ষার্বষ হতে ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত স্নাতক ডিগ্রি প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রী এবং জানুয়ারী-জুন ২০১৯ সেশন পর্যন্ত এমএস/এমবিএ ও পিএইচডি ডিগ্রী অর্জনকারী সকল ছাত্র-ছাত্রীদের উক্ত সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সনদপত্র প্রদান করা হবে। সমাবর্তনে ৬৩ জনকে চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল প্রদান করা হবে।

সমাবর্তন শেষে সন্ধ্যায় উন্মুক্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন ক্লোজআপ ওয়ান তারকা সানিয়া সুলতানা লিজা ও ব্যান্ড দল জলের গান।