যুক্তরাষ্ট্রের শহরে মাইকে আজান দেয়ার প্রাথমিক অনুমতি

২:৫৭ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০ ইসলাম
mark

ইসলাম ডেস্কঃ শব্দ দূষণের দোহাই দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের পিটারসন শহরে মাইকে আজান দেয়ার অনুমতি ছিল না। মসজিদের ভেতরে বক্স ব্যবহার করে স্বল্পমাত্রার ভলিউমে আজান দেয়া হতো সেখানে। যার আওয়াজ মসজিদ গণ্ডিতেই সীমবদ্ধ ছিল।

তবে চলতি মাসের ১৯ তারিখ থেকে লাউড স্পিকারে (মাইকে) আজান দেয়ার অনুমতি মিলেছে শহরটিতে। প্যাটারসন সিটি কাউন্সিলে বাংলাদেশি-আমেরিকান কাউন্সিলম্যান শাহিন খালিক এই প্রস্তাব আনলে ৭-০ ভোটে পাস হয়।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুসারে, যেসব মসজিদ আজানের জন্য মাইক ব্যবহার করছে সেগুলোকে শহরের শব্দ দূষণ অর্ডিন্যান্সের আওতা থেকে বাদ দেওয়া হবে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ভোর ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত প্রতিবার সর্বোচ্চ ৫ মিনিটের জন্য আজানসহ যৌক্তিক ধর্মীয় ঘোষণায় মাইক ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া যেসব মসজিদ আজানের জন্য মাইক ব্যবহার করছে সেগুলোকে শহরের শব্দ দূষণ অর্ডিন্যান্সের আওতা থেকে বাদ দেয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত হয়।

এই সিদ্ধান্তের সমর্থকর গির্জার ঘণ্টার মধ্যে মাইকের তুলনা করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে গির্জার ঘণ্টা বাজানোর অনুমতি রয়েছে।

সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়নের আগে দুটি গণশুনানির মাধ্যমে চূড়ান্ত হতে হবে। আগামী ১০ মার্চ এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে গণশুনানি ও চূড়ান্ত ভোট অনুষ্ঠিত হবে। তবে এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে শহরের অনেক অমুসলিম বাসিন্দা কাউন্সিল সদস্যদের কাছে অনেক ফোন ও ইমেইল পাঠাচ্ছেন।

এ বিষয়ে কাউন্সিল অন ইসলামিক রিলেশনসের নিউজার্সির প্রধান সালেদিন মাকসুদ জানান, বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষরা মুসলমানদের আজানের ব্যাপারে এক মত হয়েছেন। এ ক্ষেত্রে শব্দদূষণ বিরোধী আইনটিকে রদ করা হয়েছে। মাইক ব্যবহারের অনুমতির বিষয়ে সাত কর্মকর্তার সবাই একমত হয়েছেন। এখন থেকে আমরা মাইকে পাঁচ ওয়াক্তের আজান দিতে পারব। তবে এক্ষেত্রে আজানের ব্যাপ্তী ৫ মিনিটের বেশি হতে পারবে না বলে সতর্ক করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

তিনি যোগ করেন, পিটারসন শহরে ৩০ হাজার মুসলমান বসবাস করেন। ১৫টি মসজিদ রয়েছে এখানে। এখানের খ্রিস্টানরা চার্চে যেভাবে বেল বাজানো হয়, একইভাবে নামাজের জন্য আজান দিতে পারবে মসজিদ।

প্যাটারসন শহরে প্রায় ৩০ হাজার মুসলিম বসবাস করেন। শহরটিতে বেশ কয়েকটি মসজিদ রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে মাইক বাজিয়ে আজান দেয়ার অনুমোদন আছে এমন শহরগুলোর মধ্যে একটি মিশিগানের হ্যামট্র্যাক। ২০০৪ সালে এই সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় সেখানে অমুসলিম বাসিন্দাদের অনেকে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত তা সিটি কাউন্সিলের অনুমোদন পায়।

Loading...