তুরস্কের পাল্টা হামলায় ১৬ সিরীয় সেনা নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ইদলাবে শুক্রবার তুরস্কের পাল্টা হামলায় ১৬ সিরীয় সেনা নিহত হয়েছেন। এর আগে বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনীর বিমান হামলায় তুরস্কের অন্তত ৩৪ সেনা নিহত হন।

ব্রিটেনভিত্তিক সিরীয় অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, বিদ্রোহীদের হটিয়ে মাস তিনেক আগে সরকারি বাহিনীর দখলে নেয়া অঞ্চলটিতে সিরিয়ার সামরিক অবস্থানে ড্রোন ও গোলা বর্ষণ করে তুর্কি বাহিনী।-খবর এএফপি

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দামেস্কোর কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

খবরে বলা হয়, রাশিয়ার সহযোগিতায় আসাদবাহিনী বিরোধীদের হাত থেকে ইদলিবের নিয়ন্ত্রণ নিতে গত কয়েক দিন ধরেই হামলার পরিমাণ ও তীব্রতা বাড়িয়ে চলছে। বৃহস্পতিবারের হামলা তারই নজির।

তুরস্কের হাতয় প্রদেশের গভর্নর রাহমি দোগান সিরীয় হামলায় অন্তত ৩৩ তুর্কি সেনা নিহতের কথা স্বীকার করেছেন। আহতের সংখ্যা অগণিত, চিকিৎসার জন্য তাদেরকে তুরস্কের ভেতর নিয়ে আসা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান তুরস্কের শীর্ষ পর্যায়ের নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক জরুরি বৈঠক করার পরপরই ইদলিবে আসাদবাহিনীর বিমান হামলার খবর পাওয়া যায়।

তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হুলুসি আকার ও ঊর্ধ্বতন সামরিক কমান্ডাররা পরে সিরিয়ার সীমান্ত থেকে আসাদবাহিনীর বিভিন্ন স্থাপনায় স্থল ও বিমান হামলার নির্দেশনা দেন।

সিরীয় বাহিনী হামলা চালালে তার প্রত্যুত্তর দেয়া হবে বলে এরদোগান আগেই হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। তুরস্কের এ প্রেসিডেন্টের চাওয়া ছিল, আসাদবাহিনী ইদলিবে অভিযান চালালেও তারা যেন আঙ্কারার পর্যবেক্ষণ পোস্টগুলো থেকে দূরে থাকে।

সিরিয়ার সরকার ও রাশিয়া এ দাবি প্রত্যাখান করে সিরিয়ার উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশটিতে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে।

আরও পড়ুন… সিরিয়ার বিমান হামলায় তুরস্কের ৩৩ সেনা নিহত…

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে দেশটির ‘সরকারি বাহিনীর’ বিমান হামলায় তুরস্কের অন্তত ৩৩ সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন।

তুরস্কের এক জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশে বৃহস্পতিবারের এ হামলায় আরও অনেক সেনাসদস্য গুরুত্বর আহত হয়েছেন। খবর আলজাজিরার।

তুরস্কের হাতায় প্রদেশের গভর্নর রাহমি দোগান জানান, বিমান হামলায় আহত সেনারা তুর্কির একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, অন্যান্য সূত্র থেকে পাওয়া তথ্য বলছে নিহতের সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, সিরিয়ার হামলার জবাব দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে তুরস্ক।

সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশটি তুরস্কের সেনাদের সমর্থনপুষ্ট বিদ্রোহীরা দখল করে রেখেছে। বিদ্রোহীদের কাছ থেকে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী প্রদেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয়ার চেষ্টা করছে। সিরীয় বাহিনীকে সমর্থন দিচ্ছে রাশিয়া। একমাত্র ইদলিব প্রদেশের নিয়ন্ত্রণই সিরিয়া সরকারের প্রতিপক্ষের হাতে রয়েছে। তাই ইদলিব নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টায় মরিয়া আসাদ সরকার।

তবে ইদলিবে এই নৃশংস হামলার বিষয়ে সিরিয়া কর্তৃপক্ষ এখনও কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেয়নি।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter