• আজ মঙ্গলবার, ১৯ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩ আগস্ট, ২০২১ ৷

বগুড়ায় ১৪ মাসে ২৭৮টি সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৩৩৫ জনের


❏ শনিবার, মার্চ ৭, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের পরও বগুড়ায় গত ১৪ মাসে বিভিন্নভাবে ২৭৮টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে এসব দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৩৩৫ জন, আহত হয়েছে ২৬৪ জন। এদের মধ্যে গুরুতর জখম হয়েছে ৭৮ জন।

এসব দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত যানবাহনের সংখ্যা ৩৫২ টি তার মধ্যে পৃথকভাবে মামলা হয়েছে ২১৫ টি। জেলার ১২টি থানা থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, শুধু বগুড়া জেলাতেই গত ১৪ মাসে বিভিন্ন সড়ক দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ নিহত হয়েছে ৪০ জন। আহত হয়েছে প্রায় ২৩৮ জন।

হাইওয়ে পুলিশ থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, ২০২০ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসেই সড়ক দূর্ঘটনা ঘটেছে ১৭ টি। এতে নারী শিশু সহ নিহত হয়েছে ১৭ জন আর আহত হয়েছে প্রায় ২৮ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত হয়েছে ৪ জন। এসব দুর্ঘটনায় প্রায় ২৩টি যানবাহন ক্ষতিগ্রস্থ হয় এবং মামলা হয়েছে ১২টি।

২০১৯ সালের জানুয়ারী মাসে ১৮টি পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২১ আহত ১০, ফেব্রুয়ারী মাসে ১৯ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ১৯ জন আহত হয়েছে ৫ জন, মার্চ মাসে ১৬ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২০ জন আহত হয়েছে ৬ জন, এপ্রিল মাসে ২৫ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২৭ জন আহত হয়েছে ৩৩ জন, মে মাসে ১৪ দুর্ঘটায় নিহত ১২ জন আহত ১৬ জন, জুন মাসে ৩১ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৪৮ জন আহত হয়েছে ৪০ জন, জুলাই মাসে ১৬ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ১৭ জন আহত হয়েছে ৭ জন, আগস্ট মাসে ২৬ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৪৩ জন আহত হয়েছে ৫১ জন, সেপ্টেম্বর মাসে ২০ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২৫ জন আহত হয়েছে ১৪ জন, অক্টোবর মাসে ২৬ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৩১ জন আহত হয়েছে ১৮ জন, নভেম্বর মাসে ২৩ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২৭ জন আহত হয়েছে ১৪ জন, ডিসেম্বর মাসে ২৭ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২৮ জন আহত হয়েছে ২১ জন।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশের নন্দীগ্রাম কুন্দারহাট শাখার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক ইয়ামিন উদ-দৌলা বলেন, মহাসড়কে দূর্ঘটনা এড়াতে হাইওয়ে পুলিশ নিয়মিত টহল ব্যবস্থা জোরদার করেছে। তাছাড়া জনসচেতনতা বৃদ্ধি লক্ষে কমিউনিটি পুলিশিং, আলোচনাসভা করা হচ্ছে।

অন্যদিকে বর্তমান সরকারের উন্নয়নমুখী পদক্ষেপ নির্মানাধীন চারলেনের রাস্তার উভয় পাশের্^ সাব লেন করা হলেই সড়ক দূর্ঘটনা কমে আসবে বলে ওই পুলিশ কর্মকর্তা দাবী করেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন