• আজ মঙ্গলবার, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ জুলাই, ২০২১ ৷

‘দেশে নতুন করে আর কারও শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া যায়নি’

coroma
❏ সোমবার, মার্চ ৯, ২০২০ ঢাকা

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেছেন, বাংলাদেশে রোববার তিনজনের সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়ার পর নতুন করে চারজনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের কারও শরীরেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া যায়নি।

সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। ফলে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত সংখ্যা এখন পর্যন্ত তিনজনই রয়ে গেছে।

বিদেশফেরতদের বাড়িতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়ে ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, বিদেশ থেকে কেউ এলে অবশ্যই বাড়িতে অন্তত দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এ সময় ওই ব্যক্তি বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এদিক-সেদিক ঘোরাফেরা করলে প্রতিবেশীদের স্মরণ করিয়ে দিতে হবে যে, তিনি কোয়ারেন্টাইনে আছেন। তিনি যেন বাসাতেই থাকেন।

এ সময় বিদেশফেরতদের সঙ্গে বিরূপ আচরণ না করারও অনুরোধ করেন এ চিকিৎসক।

এর শাহজালাল বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, ছয় দেশ থেকে কেউ ফিরলে তাকে অবশ্যই ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে। দেশগুলো হচ্ছে- চীন, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, ইরান ও থাইল্যান্ড।

উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। রোববার সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা জানান, ধরা পড়া করোনা রোগী দুজন ইতালিফেরত। তিনজনের মধ্যে দুজন পুরুষ ও একজন নারী। সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে করোনা নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন