• আজ রবিবার, ১৭ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ১ আগস্ট, ২০২১ ৷

২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকছেন পুতিন!

putin
❏ বৃহস্পতিবার, মার্চ ১২, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভদ্মাদিমির পুতিনের ক্ষমতায় থাকার পথ আরও সুগম হলো। দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে গতকাল বুধবার সংবিধান সংশোধনের একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে। যেখানে ভদ্মাদিমির পুতিন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে আরও দুই মেয়াদে লড়তে পারবেন। আর যেহেতু তিনি এখনও অপ্রতিরোধ্য ও ক্ষমতাধর, সেহেতু ২০৩৬ সাল পর্যন্ত তার ক্ষমতায় টিকে থাকার সম্ভাবনাই বেশি।

খবরে বলা হয়, সংবিধান সংশোধন প্রশ্নে বুধবার রাশিয়ার পার্লামেন্টে তৃতীয় এবং শেষ পর্যালোচনা হয়। এরপর হয় ভোটাভুটি। সংশোধনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন ১৬০ এমপি। বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন মাত্র একজন। ভোটদানে বিরত ছিলেন ৩ এমপি।

ফলে ছয় বছর করে আরও টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার পথ অনেকটা পরিষ্কার হল পুতিনের। এখন আঞ্চলিক পার্লামেন্টের সমর্থন এবং গণভোটে রায়ের অপেক্ষা।

বুধবার ভোটাভুটি শেষে ফেডারেশন কাউন্সিলের স্পিকার ভ্যালেন্টিনা মাতভিয়েনকো বলেন, রাশিয়ার আধুনিক ইতিহাসে এক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু পাস হল। এ সংশোধনী পুতিনকে আগামী ২০২৪ সালের পর আবারও আগের প্রেসিডেন্সিয়াল মেয়াদ অনুসারে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন। অর্থাৎ তিনি ছয় বছর করে পরপর আরও দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

পুতিন রাশিয়ায় দীর্ঘ ২০ বছর ক্ষমতায় আছেন। বর্তমান সাংবিধানিক নিয়ম অনুযায়ী, ২০২৪ সালের পর আর প্রেসিডেন্ট পদে থাকতে পারবেন না সাবেক এ কেজিবি কর্মকর্তা। এজন্য সংবিধান নামের সেই কাটা উপড়ে ফেলতে চান পুতিন।

তার এ পদক্ষেপকে ‘সাংবিধানিক ক্যু’ আখ্যা দিচ্ছেন সমালোচকরা। বলা হচ্ছে, এর মধ্য দিয়ে পুতিন বাকি জীবনটাও ক্ষমতার শীর্ষে থাকার পরিকল্পনা করছেন। এর আগে বহুবার ৬৭ বছর বয়সী পুতিন বলেছেন, আজীবন ক্ষমতায় থাকার জন্য সংবিধান পরিবর্তন হচ্ছে না।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন