• আজ রবিবার, ১৭ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ১ আগস্ট, ২০২১ ৷

কুড়িগ্রামে সাংবাদিক আরিফকে গ্রেফতার ও নির্যাতনের প্রতিবাদ দেশজুড়ে


❏ রবিবার, মার্চ ১৫, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- টাস্কফোর্স অভিযানের নামে মধ্যরাতে ঘরের দরজা দরজা ভেঙে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগানকে তুলে নিয়ে নির্যাতন করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের জেল দেওয়া হয়েছে।

পরে আজ দুপুরে তাকে জামিন দেন কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. সুজাউদ্দৌলা। তবে সাংবাদিকের পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ ওই জামিন আবেদন করেননি বলে জানা গেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা জামিনের আবেদন করেননি। তারা কোনও আইনজীবীও নিয়োগ দেননি।

এদিকে সাংবাদিক আরিফকে গ্রেফতার ও নির্যাতনের ঘটনায় ফুঁসে উঠেছে দেশের সাংবাদিক সংগঠন ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। জানিয়েছেন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া।

রোববার (১৫ মার্চ) দিনভর দেশের বিভিন্ন স্থানে এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এবং কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সাংবাদিকরা।

সময়ের কণ্ঠস্বরের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

নোয়াখালী:

মধ্যরাতে সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রিগ্যানকে তুলে নিয়ে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের জেল দেওয়াসহ বিভিন্ন সাংবাদিকদের উপর মিথ্যা মামলার প্রতিবাদ ও কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে নোয়াখালীতে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

রোববার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নোয়াখালী প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হয়। পরে, মানববন্ধন ও সমাবেশ শেষে, বিক্ষোভ মিছিলটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মিলিত হয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করে।

এদিকে, মানববন্ধনে দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, রিপোর্টার আল আমিন ও অন্য ৩০ জনের বিরুদ্ধে বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অধীনে করা মামলা প্রত্যাহার এবং ফটো সাংবাদিক ও পক্ষকাল ম্যাগাজিনের সম্পাদক শফিকুল ইসলাম কাজল নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে, তাকে খুঁজে বের করতে জরুরী পদক্ষেপ নেওয়ার জোর দাবী জানানো হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বখতিয়ার শিকদার, দৈনিক যুগান্তরের মনির চৌধুরী, ইনডিপেনডেন্ট টিভির আবু নাসের মঞ্জু, জামাল হোসেন বিষাদ, দৈনিক মানবজমিনের নাসির উদ্দিন বাদল।

টাঙ্গাইল:

বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগ্যানকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১ বছরের সাজা দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। আয়োজিত মানববন্ধনে সাংবাদিকের মুক্তি ও দোষীদের শাস্তির দাবি জানানো হয়।

রবিবার (১৫ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের আয়োজনে ও প্রেসক্লাব চত্ত্বরে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নিউ এইজ পত্রিকার টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি হাবিব খান, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের টাঙ্গাইল প্রতিনিধি মামুনুর রহমান, বিটিভি’র টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জে সাহা জয়, বাংলা ট্রিবিউনের টাঙ্গাইল প্রতিনিধি এনায়েত করিম বিজয় প্রমুখ।

বক্তারা অনতি বিলম্বে গ্রেফতার হওয়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলামের মুক্তি ও জেলা প্রশাসকসহ পরিচালিত মোবাইল কোর্টের সম্পৃক্ত দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক কাজী জাকেরুল মওলা, কোষাধ্যক্ষ আব্দুর রহিম, মহিউদ্দিন সুমন, সাহাব উদ্দিন মানিক, আরিফ উর রহমান টগর, কাদির তালুকদার, শামীম আল মামুন, সুমন কুমার রায়, অভিজিৎ ঘোষসহ বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক্স ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

দিনাজপুর:

মধ্যরাতে জেলা প্রশাসকের মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযানে কুড়িগ্রামের সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সাজাসহ সারা দেশে সাংবাদিক নির্যাতন এবং হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে সাংবাদিক সমাজ।

দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে বেলা ১২টা থেকে একটা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপি এ মানববন্ধনে কুড়িগ্রামের সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সাজা, দৈনিক মানবজমিনের বিরুদ্ধে হয়রানী মামলা এবং সাংবাদিক কাজল নিখোঁজসহ দেশে সাংবাদিক নির্যাতন ও হয়রানির প্রতিবাদ জানানো হয়।

মানববন্ধন শেষে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু,সাধারণ সম্পাদক শাহ্ আলম শাহী,চ্যানেল আই ও দৈনিক মানবজমিনের স্টাফ রিপোর্টার শাহ্ আলম শাহী,দেশ টিভি’র দিনাজপুর প্রতিনিধি আবুল কাসেমসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তরা অবিলম্বে দেশে সাংবাদিক নির্যাতন ও হয়রানি বন্ধের দাবি জানান।

কুমিল্লা:

মধ্যরাতে ঘরের দরজা ভেঙ্গে মারধর করে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগ্যানকে তুলে নিয়ে মারধর এবং মিথ্যা অপবাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের সাজা দেওয়ার প্রতিবাদে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ফুঁসে উঠেছে কুমিল্লার সাংবাদিকরা।

এ বিষয়ে রবিবার (১৫মার্চ) সকাল ১১টায় কুমিল্লার প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড় টাউনহলের সামনে আরিফের মিত্যা মামলা প্রত্যাহার ও ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক এবং জড়িতদের উপযুক্ত বিচারের দাবি জানিয়ে মানববন্ধন করেছে সাংবাদিকরা।

মানববন্ধনে কুমিল্লা প্রেসক্লাব, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, সাংবাদিক সমিতি ও রিপোর্টাস ইউনিটির নেতারা আরিফের গ্রেফতারের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, সাংবাদিক আরিফকে রাতের আধারে মারধর এবং গ্রেফতারে সৎ, সাহসী এবং পেশাদারিত্ব সাংবাদিকতা আজ হুমকিতে। সাংবাদিক সমাজ আজ ক্ষুব্দ হয়ে উঠেছে সারাদেশে। এই ক্ষুব্দতা হৃস করার জন্য জেলা প্রশাসক, আরডিসি এবং সংশ্লিষ্ট তিন ম্যাজিস্ট্রেটকে আইনের আওতায় আনতে হবে এবং তাদের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিতে হবে।

মানববন্ধনে কুমিল্লা প্রেসক্লাবের আহবায়ক মাসুক আলতাফ চৌধুরী, প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং দৈনিক কুমিল্লা কাগজের সম্পাদক আবুল কাশেম হৃদয়, সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহাজাদা এমরান, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি হুমাযুন কবির রনি, টেলিভিশন জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি এবং কুমিল্লা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক ফারুকসহ অর্ধশত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

লালমনিরহাট:

বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রামের প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগ্যানে নিঃশর্ত মুক্তি, জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের অপসারণ ও বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবিতে লালমনিরহাটে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রবিবার (১৫ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে জেলা শহরের মিশনমোড় এলাকায় এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচির আয়োজন করেছে লালমনিরহাটের কর্মরত সর্বস্তরের সংবাদকর্মীবৃন্দ।

এ সময় সাংবাদিকরা সড়কের ওপর বসে ক্যামেরা, ল্যাপটপ ও বুম রেখে বিক্ষোভ প্রদর্শণ করে নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান।

মানববন্ধন থেকে সাংবাদিক নেতারা গণমাধ্যমের স্বাধীনতার সাথে গণমাধ্যম কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের অপসারণ ও অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

লক্ষ্মীপুর:

সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর নির্যাতন ও হামলা-মামলার প্রতিবাদে এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সাংবাদিকরা।

আজ রবিবার (১৫ মার্চ) সকালে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসুচি পালন করা হয়। উক্ত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাব।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল মালেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম স্বপন, ইনডিপেনডেন্ট টিভি ও মানবজমিন পত্রিকার প্রতিনিধি আব্বাছ হোসেন প্রমুখ।

এ সময় সাংবাদিক নেতারা, অনতিবিলম্ভে মানবজমিনের প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, প্রতিবেদক আল আমিনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা প্রত্যাহার ও কুড়িগ্রামের সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রিগ্যানকে জেলা প্রশাসক কর্তৃক ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা দেয়ায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। একই সাথে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক পারভিন সুলতানাকে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান তারা।

এ ছাড়া কথায় কথায় সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন, হামলা-মামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন বক্তারা। এ সব ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবিও জানান বক্তারা। এ সময় জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

পিরোজপুর:

টাস্কফোর্স অভিযানের নামে মধ্যরাতে ঘরের দরজা ভেঙে মারধর করে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগানকে তুলে নিয়ে তার প্রতি শারীরিক নির্যাতন এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের জেল দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে পিরোজপুরের কর্মরত সাংবাদিকরা।

রোববার সকালে পিরোজপুর জেলা অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের আয়োজনে শহরের টাউনক্লাব সড়কে এ মানববন্ধনে শহরের কর্মরত সাংবাদিকসহ সর্বস্থরের মানুষ অংশগ্রহন করে।

মানববন্ধনে পিরোজপুর জেলা অনলাইন জার্নলিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি খালিদ আবু এর সভাপতিত্বে এবং পিরোজপুর জেলা অনলাইন জার্নলিষ্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক তামিম সরদারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক এ কে আজাদ, আরিফ মোস্তফা, তানভীর আহমেদ, ওয়াহিদ হাসান বাবু, হাসান মামুন, ইমাম হোসেন মাসুদ, হাসিবুল ইসলাম হাসান, রেজওয়ান সাজন, ইমন চৌধুরী, ফেরদৌস রহমান প্রমুখ।

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম):

মধ্যরাতে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম রিগ্যানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও ডিসি সুলতানা পারভীনের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন করেছে সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের মানুষ।

রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার তিনকোণা মোড়ে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক মিলন, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম,আব্দুল আজিজ মজনু, অলিউর রহমান নয়ন, শাহিনুর রহমান শাহিন, উত্তম কুমার মোহন্ত, জাহাঙ্গীর আলম, অনিল চন্দ্র রায়, এস এম আসাদুজ্জামান, জাকারিয়া শেখ, রবিউল ইসলাম বেলাল, জাকারিয়া মিয়া, ইউনুস আলী আনন্দ, মাহবুব রহমান সুমন,নুরনবী সরকার প্রমূখ।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন