• আজ মঙ্গলবার, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ জুলাই, ২০২১ ৷

প্রয়োজনে শিবচর ও মাদারীপুর লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


❏ বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৯, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- জেলা হিসেবে মাদারীপুর ও জেলাটির শিবচর উপজেলা করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে বেশি রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। প্রয়োজনে শিবচর ও মাদারীপুর ‘লকডাউন’ করা হতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জরুরি এক প্রেস ব্রিফিং তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বরেন, শিবচর ও মাদারীপুর ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এই এলাকাতেই বিদেশ থেকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষ বেশি এসেছে। সেখানেই বেশি নজরদারি করা হচ্ছে। তাই প্রয়োজনে এই এলাকা লকডাউন করা হবে।

বিদেশ ফেরত এলাকাগুলোয় যেখানে কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মানা হচ্ছে না। সেই সব এলাকা লকডাউন করার কোনো চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে কিনা- জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যথার্থই বলেছেন। পরিস্থিতির যদি আরও অবনতি হয় তবে কোনো এরিয়া যদি বেশি আক্রান্ত হয়ে যায়। আমরা অবশ্যই সেই সেই এরিয়াকে লকডাউন করে দেব। আরও যেখানে যেখানে প্রয়োজন হবে আমরা লকডাউনে চলে যাব। কারণ আমাদের দেশের মানুষকে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা করতে হবে।

লকডাউন করাটাই আক্রান্ত এলাকার জন্য একমাত্র উপায় যার মাধ্যমে আমরা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ করতে পারব।

কোন এলাকাগুলোতে লকডাউন করার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে কোনো ধারণা কী আছে- এ বিষয়ে তিনি বলেন, দু-একটি এলাকার কথা আমাদের খবরে আসে। সেটা হলো মাদারীপুর এরিয়া, ফরিদপুর এরিয়া, শিবচর এরিয়া। এসব এলাকায় বেশি দেখা দিচ্ছে। যদি অবনতি ঘটে তাহলে আমরা লকডাউনের দিকে আমরা যাব।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সব দেশ আমাদের সাহায্য করছে। টেস্টিং কিট দিচ্ছে। আমাদের ১৭টি হটলাইন নম্বর দেওয়া আছে। প্রতিদিন আমাদের অনেক ফোন আসে। সব জেলা থেকে আমরা আপডেট পাচ্ছি। আমরা নির্বাচন কমিশনকে বলেছি মিছিল বন্ধ রাখতে। ক্লাব-সিনেমা হলও বন্ধ করা হয়েছে।

এছাড়া করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দেশের স্বাস্থ‌্য বিভাগের সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন