• আজ মঙ্গলবার, ১৯ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩ আগস্ট, ২০২১ ৷

নন্দীগ্রামে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন স্থাপন, মেয়রসহ ২৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে


❏ বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৯, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

মুনিরুজ্জামান মুনির, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি- বগুড়ার নন্দীগ্রামে নভেল করোনাভাইরাস পর্যবেক্ষণের জন্য পাঁচটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা মিলে ১৩টি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন স্থাপন করা হয়েছে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে উপজেলায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বিদেশ ফেরত পৌরসভার মেয়রসহ ২৯ জনকে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্য তিন জনকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ায় স্বাভাবিক চলাফেরার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) থেকে উপজেলায় পার্ক বিনোদন কেন্দ্র, ওয়াজ মাহফিল, হরিনাম কীর্ত্তন, বিবাহ ও জন্মদিনের অনুষ্ঠান বা যেকোনো জমায়েত, গণজমায়েত, মুক্তমঞ্চ, কোচিং সেন্টারসহ সব ধরনের উৎসব করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে জরিমানাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ ) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় করোনাভাইরাস পর্যবেক্ষণের জন্য বিদেশফেরত ২৯ ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সন্দেহভাজনদের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যারা এ নির্দেশ অমান্য করবে তাদের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন স্থাপন করা হয়েছে।

প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন হিসেবে উপজেলা সদরে নির্ধারণ করা হয়েছে, নন্দীগ্রাম মনসুর হোসেন ডিগ্রী কলেজ, মহিলা কলেজ, ও মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়। বুড়ইল ইউনিয়নে, ধুন্দার স্কুল এন্ড কলেজ ও মুরাদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভাটরা ইউনিয়নে, ইউনিয়ন কৃষি সেবা কেন্দ্র ও ভাটরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। থালতা মাঝগ্রাম ইউনিয়নে, নিমাইদিঘী আর্দশ কলেজ, বাঁশো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আমড়া গোহাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভাটগ্রাম ইউনিয়নে, হাটকড়ই ডিগ্রী কলেজ, হাটকড়ই উচ্চ বিদ্যালয় ও বিজরুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় । এছাড়াও করোনা বিষয়ে যেকোনো তথ্য ও সেবার জন্য উপজেলা কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ ) দুপুরে করোনা ভাইরাস সচেতনতায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সচেতনতামূলক পরামর্শ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার। এ সময় থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শওকত কবির, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ ইকবাল মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সন্দেহভাজন কোন ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবং তাকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন