• আজ শুক্রবার, ১৫ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ৩০ জুলাই, ২০২১ ৷

হাতীবান্ধায় বালু ফেলাকে কেন্দ্র করে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারধরের অভিযোগ


❏ শুক্রবার, মার্চ ২০, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বালু ফেলাকে কেন্দ্র করে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ২ জনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে মাসুদ রানা নামে এক জনের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) রাতে ৯টার দিকে উপজেলা খোর্দ্দ বিছনদই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ২ জনকে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার খোর্দ্দ বিছনদই এলাকার মকবার আলীর ছেলে মাসুদ রানা (৩৩) প্রতিবেশী আজিজার রহমানের ছেলে সামছুল ইসলাম (সুফি) এর বাড়ীর সামনের জমিতে জোরপুর্বক ট্রাকে করে বালু ফেলছিল। এ সময় সামসুল ইসলামের অন্তঃসত্ত্বা মেয়ে সুলতানা পারভীন রানী (৩২) ও জামাতা আহসান হাবীব সবুর বালু ফেলতে বাঁধা দেয়।

এতে পূর্বের জমিজমার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে মাসুদ রানাসহ প্রায় ৭ থেকে ৮ জন এলোপাতারিভাবে অন্তঃসত্ত্বা সুলতানা পারভীন রানী ও আহসান হাবীব সবুরকে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে অন্তঃসত্ত্বা সুলতানা বলেন, মাসুদ রানা আমাদের জমিতে জোর পূর্বক বালু ফেলছিল এ সময় আমি ও আমার স্বামী তাদের বাঁধা দিলে মাসুদ রানাসহ আরও কয়েকজন আমাদের এলোপাতারিভাবে মারধর শুরু করে। এ ঘটনায় আমার বাবা বাদি হয়ে রাতেই হাতীবান্ধা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মাসুদ রানা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি সরকারী রাস্তায় বালু ফেলছিলাম এ সময় হয়তো তাদের জমিতে একটু বালু পরেছিল। আমি বালু সরিয়ে নিতে একটু দেরি হওয়ায় তারাই আমাদের মারধর করেছে।

হাতীবান্ধা থানার ওসি (তদন্ত) নজির হোসেন বলেন, এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন