সংবাদ শিরোনাম

বিয়ে পাগল স্বামীর গোপনাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে দিলেন স্ত্রী!সিরাজগঞ্জে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ব্যবসায়ী ও শিশু নিহতটিকা সবাইকে দিয়ে নিই, তারপর আমি নেবো: প্রধানমন্ত্রীসুনামগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ২ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, ১ জন আটকসংঘর্ষ, গোলাগুলি অতঃপর দুই লাশে শেষ হলো চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনরংপুরে ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ১৯ লাখ টাকা জরিমানানির্বাচন বর্জন করলেন ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী জান্নাতুল ইসলামদেশের প্রথম করোনা টিকা নিলেন নার্স রুনুমুন্সিগঞ্জে শিশু ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবনদেশে করোনা টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আজ ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনায় ২০ হাজার হতদরিদ্র পরিবারের পাশে মেয়র আতিক

◷ ১২:০১ পূর্বাহ্ন ৷ শুক্রবার, মার্চ ২৭, ২০২০ ঢাকা
atik

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকাঃ করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এরইমধ্যে দেশের সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া একসঙ্গে দুই জনের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সারাদেশে মোতায়েন করা হয়েছে সেনাবাহিনী। ফলে কার্যত পুরোদেশ এখন লকডাউনের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় কর্মহীন হয়ে পড়েছেন শ্রমজীবী মানুষেরা।

এমন অবস্থায় কর্মস্থলে কাজে যোগ দিতে না পারা খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। তিনি ২০ হাজার পরিবারের মধ্যে চাল-ডালসহখাদ্য সামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছেন। শুক্রবার (২৭ মার্চ) থেকে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

মেয়র আতিকের অফিস থেকে জানা গেছে, প্রায় ৩ হাজার হতদরিদ্রর কাছে খাবার পৌঁছে দেয়ার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সাহায্য করছে ‘বিডি ক্লিন’ নামের সংগঠনটি। প্রতিটি পরিবারের জন্য তৈরি এই প্যাকেটে থাকছে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি আলু এবং ১টি সাবান।

এ বিষয়ে বিডি ক্লিনের প্রধান সমন্বয়ক ফরিদ উদ্দিন বলেন, খাবার পৌঁছে দেয়ার সময় ত্রাণ কার্যক্রমে দেখা যায় বেশ ভিড় হয়। কিন্তু আমাদের এই কার্যক্রমে কোন ভিড় থাকবে না। কেননা খাবার পৌঁছানোর আগে থেকে নির্দিষ্ট স্থানে আমাদের ৩ জন কর্মী থাকবে। তারা সেখানে পরিবারের তালিকা তৈরি করে তাদের কাছে খাবার পৌঁছে দেবে ঘরে গিয়ে। অর্থাৎ তার পাশের ঘরের মানুষও বিষয়টি জানতে পারবে না।

মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘দেশের চলমান পরিস্থিতিতে সব চেয়ে বেশি কষ্টে আছে খেটে খাওয়া মানুষেরা। যারা দিন আনে দিন খায়। তাদের এখন কোনও কর্ম নেই। তাই এই মানুষগুলোর কথা চিন্তা করে আমি এই উদ্যোগ নিয়েছি। আশা করি, দেশের সামর্থ্যবানরাও এদের পাশে এসে দাঁড়াবেন।’