সংবাদ শিরোনাম
করোনায় ঢাকার সাবেক এমপি মকবুলের মৃত্যু | বরিশালে ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্তদের ঘর মেরামত করে দিলেন সেনাবাহিনী | এবার প্রবাসীদের বাড়িতে ঈদ উপহার পাঠালেন মাশরাফি | ইতালিতে ঈদুল ফিতর উদযাপন করলেন ২৫ লাখ মুসল্লি | করোনাকালে “এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট” হিসেবে দায়িত্ব পালনের গল্প | ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীনদের ঈদ উপহার দিল সেনাবাহিনী | করোনা চিকিৎসায় ১৩টি হাসপাতালে রেমডেসিভির সরবরাহ শুরু | কৃষকদের ধান কেটে দেওয়ায় ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন | জীবিকার স্বার্থে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী | “পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সরকারি সহায়তা অব্যাহত থাকবে” |
  • আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনা মোকাবেলায় ৩০ লাখ রুপিসহ এক মাসের বেতন দিলেন নুসরাত

৮:৫৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০ বিনোদন
Nusrat

বিনোদন ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। এ ভাইরাস আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। এর মধ্যে ভারতে করোনা মোকাবিলায় চলছে লকডাউন। এ অসময়ে রাষ্ট্রকে ভালোবেসে সরকারকে সহায়তা দিতে এগিয়ে আসছেন দেশটির অনেক তারকা।

নুসরাত জাহান বসিরহাটের তৃণমূলের তারকা সাংসদ তিনি। দেব এবং মিমি চক্রবর্তীর পর করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্যের এ হাত বাড়িয়ে দিলেন নুসরাত। করোনা মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে নিজের এক মাসের বেতন এবং নিজস্ব সাংসদ তহবিল থেকে ৩০ লাখ রুপি দিলেন। শনিবার নুসরাতের তহবিল থেকে এই অর্থ প্রদান করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুধু বসিরহাটবাসীই নয়, স্বাস্থ্যকর্মীদের দিকেও নজর রেখেছেন সাংসদ। বসিরহাট এলাকায় যত হাসপাতাল রয়েছে, সেখানকার স্বাস্থ্যকর্মীরা যাতে যথাযথ মাস্ক, স্যানিটাইজার, গ্লাভস পান এবং করোনা চিকিৎসায় যাতে কোনো ঘাটতি না থাকে, সেজন্যই নিজের সাংসদ তহবিল থেকে ৩০ লাখ রুপি ও সাংসদের এক মাসের বেতন প্রদান করেছেন নুসরাত জাহান। এছাড়াও করোনা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় টেস্ট কিট কেনার জন্যও এই অনুদান ব্যয় করা হবে।

নুসরাত জাহান সব সময়ই মানবিক কর্মকাণ্ডের জন্য প্রশংসিত হয়েছেন। অসহায় মানুষের পাশে সুযোগ পেলেই সহযোগিতার দু’হাত বাড়িয়ে দেন তিনি। বিপদকালীন সময়ে আরও একবার সেই প্রমাণ দিলেন নুসরাত।

এর আগে অভিনেতা ও সাংসদ দেব নিজের সংসদীয় এলাকার মানুষদের জন্য ১ কোটি রুপি দান করেন। নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনার জন্য নিজের সাংসদ তহবিল থেকে এ অর্থ প্রদান করেন তিনি। অন্যদিকে যাদবপুরের সাংসদ ও অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ব্যক্তিগতভাবে ১ লাখ রুপি এবং নিজের তহবিল থেকে ৫০ লাখ রুপি দান করেন ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইমার্জেন্সি রিলিফ ফান্ডে।