সংবাদ শিরোনাম

হাসিনা-মোদির সুসম্পর্কের কারণেই টিকা এসেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রীনিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঘরে ঢুকে পড়ল ট্রাক, প্রাণ গেল ঘুমন্ত ব্যক্তিরটাঙ্গাইলে নারীর গোসলের ভিডিও ধারণকারী ছাত্রলীগ নেতা কারাগারেভূঞাপুর পৌর নির্বাচনঃ সকালে ব্যালট সামগ্রী পাঠাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর আবেদনপদ্মা সেতুর নাম ‘শেখ হাসিনা সেতু’র প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রীর নাহাতীবান্ধায় ব্রিজ নির্মাণে খুশি চরাঞ্চলের হাজার মানুষআবারও পপির বিয়ের গুঞ্জন৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারা দেশে টিকাদান শুরু: স্বাস্থ‌্যমন্ত্রীমিরপুরে ডিএনসিসির উচ্ছেদে বাধা, পুলিশের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষবৃদ্ধাকে নির্যাতনকারী ভয়ঙ্কর সেই গৃহকর্মী ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রেপ্তার

  • আজ ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কর্মহীন মানুষদের হাতে খাবার তুলে দিল হামার ডোমার

◷ ৬:০০ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০ রংপুর
received 232756987779029

সময়ের কণ্ঠস্বর, নীলফামারী :: মরনব্যাধি করোনার কারনে সারাদেশের ন্যায় নীলফামারীর ডোমারেও দোকান-পাট,যানবাহনসহ সব কিছু বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে রিক্সা,ভ্যান,অটোসহ সব যান্ত্রিক যানবাহন। ফলে কর্মহীন হয়ে পরেছে এই এলাকার হাজার হাজার মানুষ। সব থেকে বিপাকে পরেছে দিনমজুর,রিক্সা ও ভ্যান চালকরা।

কর্মহীন হয়ে পরায় দোকানের কর্মচারীরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন। কর্মহীন হয়ে পরা সেই সব মানুষদের পাশে দাড়িয়ে তাদের খাবার তুলে দিলেন হামার ডোমার নামে একটি সামাজিক সংগঠন। মঙ্গলবার সকাল ১১ ঘটিকায় ডোমার নাট্য সমিতি মিলনায়তনে কর্মহীন হয়ে পরা মানুষদের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

হামার ডোমারের উদ্দোক্তা ডোমার সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি আসাদুজ্জামান চয়নের নিজস্ব তহবিল থেকে প্রায় দুই শতাধিক মানুষের মাঝে চাল,আলু,ডাল ও সাবান বিতরন করা হয়।

এ সময় ডোমার প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাফ্ফর আলী, সাংবাদিক আনিছুর রহমান মানিক, উপজেলা ছাত্র সমাজের আহবায়ক সাব্বির হোসেন, সদস্য সচিব খোরশেদ আলম খোকন, পৌর জাপার আহবায়ক মতিয়ার রহমান, উপজেলা স্বোচ্ছাসেবক পার্টির সদস্য সচিব মিলন ইসলাম, রংপুরের কন্ঠের প্রকাশক শরিফুল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

কর্মহীন হয়ে পরা মানুষজন খাদ্যসামগ্রী পেয়ে তাদের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। এর আগে চয়নের মা আনোয়ারা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকেও পাঁচ শতাধিক মানুষের মাঝে খাবার সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরন করেছেন প্রেসক্লাব সাধারন সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান চয়ন।

রিক্সাচালক রশিদ বলেন বাজারে লোক না থাকায় সারাদিনে ৬০/৭০ টাকা কামাই হয়। দুইদিন থেকে আর কেউ রিক্সায় উঠে না। ফলে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে দিন যাপন করছি। এই সময়ে চয়ন ভাই চাল,ডাল, আলু দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করায় অনন্ত পক্ষে সাতদিন আমরা খেয়ে থাকতে পারবো।

আসাদুজ্জামান চয়ন এই সংকট মুহুর্ত্তে কর্মহীন হয়ে পরা মানুষদের সহযোগীতা করার জন্য এলাকার জনপ্রতিনিধি,ব্যবসায়ী ও ধণাঢ্য ব্যাক্তিদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।