🕓 সংবাদ শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে সড়কের পাশে মিলল বোরকা পরা তরুণীর মরদেহরাতে দোকান থেকে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ মিললো সকালেজরুরি বিজ্ঞপ্তিতে আলিম পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনইউনেস্কো পুরস্কার জিতলো দেড়শ বছরের পুরনো দোলেশ্বর হানাফিয়া মসজিদঢাকার পর শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর হচ্ছে চট্টগ্রামেও‘ভাই কবরে ,খুনি কেন বাহিরে’ শ্লোগানে শিক্ষার্থীদের কফিন মিছিলশিশুকে ডায়াবিটিস থেকে দূরে রাখতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করবেনদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে তৈরি থাকার বার্তা দিল ”হু”বুড়িগঙ্গায় ’সাকার ফিশ’র দখলে, হুমকিতে দেশীয় মাছরোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক-৫

  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

করোনায় ১ লাখ পরিবারকে ১৫ কোটি টাকা অর্থসহায়তা দেবে ব্র্যাক

BRAC
❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ব্যর্থ সারা বিশ্ব। ভাইরাসটির কারণে সারা বিশ্বে অচলাবস্থা বিরাজ করছে। একের পর এক শহরে চলছে লকডাউন। বাংলাদেশেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো পদেক্ষপ গ্রহণের কারণে জীবিকার ঝুঁকিতে পড়েছে দরিদ্র পরিবারগুলো।

এমন অবস্থায় দেশের অতিদরিদ্র পরিবারগুলোকে খাবার কেনার সহায়তা দিতে ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে ব্র্যাক। মহানগর ও নগর এলাকার বস্তি, উপশহর এলাকা এবং দুর্গম অঞ্চলের পরিবারগুলোর জন্য এ সহায়তা প্রদান করা হবে।

বৃহস্পতিবার ব্র্যাকের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে। আজ থেকেই দরিদ্র পরিবারগুলোকে নগদ ১৫০০ টাকা করে অর্থ সহায়তা দেওয়া শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সামাজিক দূরত্ব ও লকডাউনের মতো পদেক্ষপ নেওয়ার কারণে জীবিকার ঝুঁকিতে পড়া দরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য খাবার কেনার সহায়তা দিতে ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে ব্র্যাক। মহানগর ও নগর এলাকার বস্তি, উপশহর এবং দুর্গম এলাকার পরিবারগুলোর জন্য এ সহায়তা দেওয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে ১ লাখ পরিবারকে নিজস্ব তহবিল থেকে এই সহায়তা দেওয়া হবে। ব্র্যাকের চারটি উন্নয়ন কর্মসূচি ও হিউম্যানিটারিয়ান প্রোগ্রামের মাধ্যমে এই সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ব্র্যাকের এই সহায়তা চার সদস্যের একটি পরিবারকে দুই সপ্তাহের জন্য ন্যূনতম খাদ্য উপকরণ কিনতে সাহায্য করবে। ১২টি সিটি করপোরেশন, ৮টি পৌরসভা, ৩৮টি সদর উপজেলা, হাওর, নদীবন্দর এবং বাজারহাট এলাকা ও কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আশেপাশের পাড়াগুলোতে বসবাসকারী স্থানীয় জনগোষ্ঠীর পরিবারগুলো এ সহায়তা পাবেন। কার্যক্রম বাস্তবায়নের দায়িত্বে নিয়োজিত ব্র্যাকের কর্মীবাহিনী স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করবেন।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ্ বলেন, আমাদের জরুরি সহায়তার লক্ষ্য নিম্নআয়ের পরিবারে যারা করোনাভাইরাসের প্রকোপে আয়ের উৎস হারিয়েছেন। আমরা ১ লাখ পরিবারকে সহায়তা দিচ্ছি যদিও প্রয়োজন আরো অনেক বেশি পরিবারের। আমি তাই সহানুভূতিশীল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান উভয়ের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি যেন তারাও এগিয়ে আসেন। তাদের সাহায্যে আমরা আরো অনেক বিপন্ন পরিবারের কাছে পৌঁছাতে পারব।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক জানান, অর্থ প্রদানের এই কার্যক্রম স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে পরিচালিত হবে, যাতে একই পরিবারের কাছে একাধিকবার সাহায্য না যায় এবং যথাসম্ভব বেশি সংখ্যক অতিদরিদ্র পরিবারের কাছে সহায়তা পৌঁছানো সম্ভব হয়।