🕓 সংবাদ শিরোনাম

রংপুরে ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল ৩ নারী শ্রমিকেরভুয়া স্বাক্ষর দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ, প্রতিবাদে মানববন্ধনমানিকগঞ্জের কেন্দ্রে গুলোতে পৌঁছেছে নির্বাচনী সামগ্রী, ব্যালট যাবে সকালেমুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীবগুড়ায় চেয়ারম্যান পদে ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ভাই!শরীয়তপু‌রে নির্বাচনী সহিংসতায় দলীয় কর্মীর মৃত্যুতে সংবাদ স‌ম্মেলনমন্ত্রিত্ব একটি চ্যালেঞ্জিং জব: কাদেরটাঙ্গাইলে শ্রমিক লীগ নেতা হত্যায় মামলা, গ্রেপ্তার ২ছোটবেলায় আমরাও হাফ ভাড়ায় চলেছি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসংসদে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের পক্ষে কথা বলে তোপে বিএনপির হারুন

  • আজ শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ নভেম্বর, ২০২১ ৷

করোনায় ইতালিতে মৃত বাংলাদেশির দাফন


❏ শুক্রবার, এপ্রিল ৩, ২০২০ প্রবাসের কথা

ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালি প্রতিনিধি: ইতালিতে করোনা ভাইরাসে মারা যাওয়া দ্বিতীয় বাংলাদেশির জানাজা-দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) ইতালির স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০ টায় দারুল হিকমাহ একাডেমী’র প্রধান খতিব এবং মিলান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা জোনায়েদ সোবহান করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বাংলাদেশির জানাজার নামাজ পড়ান।

এসময় তার জানাজা নামাজে ইতালি সরকারে বিধিনিষেধ মেনে কয়েকজন বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করেন। পরে ইতালি মিলানের Bruzzano কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মিলানে বসবাসরত প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক তুহিন মাহামুদ করোনায় মারা যাওয়া দ্বিতীয় বাংলাদেশির দাফন সম্পন্ন হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (৩০ মার্চ) ইতালির বাণিজ্যিক শহর মিলানে অপু (৪২) নামের ঐ প্রবাসী বাংলাদেশি স্থানীয় সময় দুপুর ১ টায় মিলানোর একটি হাসপাতালে মারা যান। তার দেশের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায়।

এই নিয়ে ইতালিতে করোনায় দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত ২০ মার্চ গোলাম মাওলা (৬২) নামের ওপর এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়।

এদিকে তাদের মৃত্যুতে ইতালিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

করোনায় মারা যাওয়া দুই বাংলাদেশির শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মিলানে বাংলা কমিউনিটির নেতারা।

মিলান বাংলাদেশ কন্সুল্যেটের কনসাল জেনারেল ইকবাল আহমেদ বলেন, এখন পর্যন্ত ইতালিতে করোনায় দুই বাংলাদেশী’র মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরও কয়েকজন বাংলাদেশী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

তিনি জানান, বাংলাদেশিরা যে কোন অসুখে হাসপাতালে যাওয়ার পূর্বে কন্স্যুলেটকে অবহিত করা উচিত এবং সরকারি আইন মেনে বাসায় থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

জানা গেছে, ইতালিতে করোনায় অথবা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা যাচ্ছে পরিবারে কেউ যদি তাৎক্ষণিক (৩/৪ ঘন্টা) যোগাযোগ করে তাহলে স্বধর্মীয় রীতিনীতি অনুযায়ী তাকে সমাধি করার সুযোগ পাচ্ছেন।