• আজ শুক্রবার। গ্রীষ্মকাল, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। দুপুর ২:৪৯মিঃ

সকলের কথা ভাবতে শেখাচ্ছে করোনা বিধ্বস্ত ইতালি

⏱ | রবিবার, এপ্রিল ৫, ২০২০ 📁 আন্তর্জাতিক
ita

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ চীনের পর করোনা সবচেয়ে ভয়াল থাবা বসিয়েছে ইতালিতে। মারণভাইরাসের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছে ইতালি। গোটা দেশজুড়ে চলছে দীর্ঘ লকডাউন। এতে সব থেকে বেশি সমস্যায় পড়েছেন গরিব মানুষগুলো। তাদের খাবার জুটছে না প্রায়ই। এ বার তাদের সাহায্য করতে এগিয়ে এলেন ইতালির নেপলসের স্থানীয়রা।

দক্ষিণ ইতালির নেপলসে দেখা গিয়েছে এক অদ্ভুত মন ভাল করা দৃশ্য। সেখানে বারান্দা থেকে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে ঝুড়ি। আর তার সঙ্গে কাগজে লিখে বার্তাও দেওয়া হয়েছে। কাগজে লেখা, ‘যদি পারেন কিছু রেখে যান, না পারলে নিয়ে যান।’ ঝুড়িগুলিতে বিভিন্ন রকম খাদ্যদ্রব্য রাখা থাকছে।

আসলে নেপলসে যাঁদের খাবার জোগাড় করতে সমস্যা হচ্ছে, তাঁদের জন্য স্থানীয়রা এমন ব্যবস্থা করছেন। সেখানে অন্য কেউ চাইলে খাবার রেখে সাহায্যও করতে পারেন। আর যাঁদের খাবারের প্রয়োজন, তাঁরা নিয়ে যেতে পারবেন।

দ্য গার্ডিয়ানের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, শুকনো খাবার, ঘরে রান্না করা তরিতরকারি, প্যাকেটবন্দি মাংস, পাউরুটি, পাস্তা, টোম্যাটো– এই সব জিনিস সেই বাক্সে রাখছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ব্যালকনি থেকেই তাঁরা দরিদ্র, গৃহহীন মানুষদের সাহায্য করছেন এইভাবে।

স্থানীয় এক সংবাদ মাধ্যম সূত্রের খবর, এই উদ্যোগের নাম দেওয়া হয়েছে ‘পানারো সলিডালে’। ইতালীয়ান ভাষায় যার অর্থ, সহ-নাগরিকদের পাশে থাকুন। নেপলসের মানুষেরা বলেছেন, “আমরা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবেই এই কাজ করি। সব যখন স্বাভাবিক ছিল, তখনও দুঃস্থ, অসহায় নাগরিকদের সাহায্য দিতাম। এখন ঘরবন্দি থেকেও সেই কাজ করছি।”

সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন খাবারের ঝুড়ি ঝুলিয়ে রাখার বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, কেউ কেউ ঝুড়ি থেকে খাবার নিয়ে যাচ্ছেন। ঝুড়িতে, পাস্তা, রুটি-সহ বিভিন্ন রকম খাবার রেখেও দিচ্ছেন স্থানীয়রা।